ঢাকা , শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
বিশ্বায়নের যুগে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই: প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মালয়েশিয়া থেকে নিজ দেশে ফিরেছেন ৬১ হাজারের বেশি নথিবিহীন প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য যেসব ভিসা চালু করেছে ওমান শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সার্ক মহাসচিবের সৌজন্য সাক্ষাৎ দ্বিতীয়বার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সভাপতি বেনজীর আহমেদ এবার হজে প্রচণ্ড গরমের শঙ্কা, সতর্ক থাকার আহ্বান মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন অপরাধে ৬৬ বাংলাদেশিসহ ২৭০ অভিবাসী অভিযুক্ত মালয়েশিয়ায় যেতে না পারা ৩ হাজার কর্মীর অভিযোগ মন্ত্রণালয়ে বায়রা’র এজিএম-এ হট্টগোল, পাল্টাপাল্টি অভিযোগ রিক্রুটিং এজেন্সি মালিকদের বাংলাদেশ থেকে আরো দক্ষ কর্মী নেবে জাপান: প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

মালয়েশিয়ায় চরমপন্থী দলের থানায় হামলা, দুই পুলিশ নিহত

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া
  • আপডেটের সময় : ০৪:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪
  • / 99

 

মালয়েশিয়ায় চরমপন্থি দলের সদস্যরা থানায় হামলা চালিয়ে দুই পুলিশ সদস্যকে হত্যা করেছে। রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বার্নামা জানিয়েছে, শুক্রবার (১৭ মে) ভোরে মালয়েশিয়ার জোহর রাজ্যের উলু তিরাম থানায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার চরমপন্থি গোষ্ঠী জেমাহ ইসলামিয়ার সদস্যরা হামলা চালায়।

 

পুলিশের মহাপরিদর্শক রাজারুদিন বলেন, হামলার পর পুলিশ বর্তমানে জোহরে থাকা ২০ জনের বেশি জেমাহ ইসলামিয়া সদস্যকে শনাক্ত করেছে।

 

মুখোশধারী সন্দেহভাজন একটি বন্দুক এবং একটি প্যারাং নিয়ে সজ্জিত হয়ে রাত ২টা ৪৫ মিনিটে  উলু তিরাম থানায় হামলা চালায়। ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হওয়ার আগে সে দুই পুলিশ সদস্যকে হত্যা করে এবং অপর একজনকে আহত করে। পরে পুলিশ তার কাছ থেকে একটি বলথের পি৯৯ পিস্তল এবং একটি এইচকে এমপি৫ রাইফেল উদ্ধার করেছে।

 

হামলায় আহত পুলিশ সদস্য বর্তমানে ভালো রয়েছে বলে জানান পুলিশের এ মহাপরিদর্শক। এবিষয়ে মালয়েশিয়ার শীর্ষ পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার পরে মালয়েশিয়া জুড়ে সমস্ত থানায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পুলিশের মহাপরিদর্শক রাজারুদ্দিন হোসেনের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্নামা জানিয়েছে, হামলার তদন্ত করার জন্য ১৯ থেকে ৬২ বছর বয়সী সন্দেহভাজন একই পরিবারের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হামলার বিষয়ে প্রতিবেদন করার জন্য দুই অভিযোগকারীকেও আটক করা হয়েছে।

 

উল্লেখ্য, ২০০২ সালে বালিতে বোমা হামলায় ২০০ জনেরও বেশি লোক নিহত হওয়ার পিছনে ছিল এ জেমাহ ইসলামিয়া। ২০০৯ সালে জাকার্তার ম্যারিয়ট এবং রিটজ-কার্লটন হোটেল লক্ষ্য করে আরো বোমা হামলা করেছিলো চরমপন্থি এ দলটি।

 

বিপথগামী এ দলটির সদস্যরা ১৯৯০-এর দশকে আফগানিস্তানে সামরিক প্রশিক্ষণ পেয়েছিলেন বলে জানা গেছে এবং গোষ্ঠীটির আল-কায়েদার সাথে সম্পর্ক রয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

শেয়ার করুন

মালয়েশিয়ায় চরমপন্থী দলের থানায় হামলা, দুই পুলিশ নিহত

আপডেটের সময় : ০৪:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪

 

মালয়েশিয়ায় চরমপন্থি দলের সদস্যরা থানায় হামলা চালিয়ে দুই পুলিশ সদস্যকে হত্যা করেছে। রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বার্নামা জানিয়েছে, শুক্রবার (১৭ মে) ভোরে মালয়েশিয়ার জোহর রাজ্যের উলু তিরাম থানায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার চরমপন্থি গোষ্ঠী জেমাহ ইসলামিয়ার সদস্যরা হামলা চালায়।

 

পুলিশের মহাপরিদর্শক রাজারুদিন বলেন, হামলার পর পুলিশ বর্তমানে জোহরে থাকা ২০ জনের বেশি জেমাহ ইসলামিয়া সদস্যকে শনাক্ত করেছে।

 

মুখোশধারী সন্দেহভাজন একটি বন্দুক এবং একটি প্যারাং নিয়ে সজ্জিত হয়ে রাত ২টা ৪৫ মিনিটে  উলু তিরাম থানায় হামলা চালায়। ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হওয়ার আগে সে দুই পুলিশ সদস্যকে হত্যা করে এবং অপর একজনকে আহত করে। পরে পুলিশ তার কাছ থেকে একটি বলথের পি৯৯ পিস্তল এবং একটি এইচকে এমপি৫ রাইফেল উদ্ধার করেছে।

 

হামলায় আহত পুলিশ সদস্য বর্তমানে ভালো রয়েছে বলে জানান পুলিশের এ মহাপরিদর্শক। এবিষয়ে মালয়েশিয়ার শীর্ষ পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার পরে মালয়েশিয়া জুড়ে সমস্ত থানায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পুলিশের মহাপরিদর্শক রাজারুদ্দিন হোসেনের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্নামা জানিয়েছে, হামলার তদন্ত করার জন্য ১৯ থেকে ৬২ বছর বয়সী সন্দেহভাজন একই পরিবারের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হামলার বিষয়ে প্রতিবেদন করার জন্য দুই অভিযোগকারীকেও আটক করা হয়েছে।

 

উল্লেখ্য, ২০০২ সালে বালিতে বোমা হামলায় ২০০ জনেরও বেশি লোক নিহত হওয়ার পিছনে ছিল এ জেমাহ ইসলামিয়া। ২০০৯ সালে জাকার্তার ম্যারিয়ট এবং রিটজ-কার্লটন হোটেল লক্ষ্য করে আরো বোমা হামলা করেছিলো চরমপন্থি এ দলটি।

 

বিপথগামী এ দলটির সদস্যরা ১৯৯০-এর দশকে আফগানিস্তানে সামরিক প্রশিক্ষণ পেয়েছিলেন বলে জানা গেছে এবং গোষ্ঠীটির আল-কায়েদার সাথে সম্পর্ক রয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।