ঢাকা , রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
প্রবাসীদের দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর মালয়েশিয়ায় চালু হচ্ছে ই-পাসপোর্টের কার্যক্রম প্রবাসীদের ঈদ উদযাপন বাস্তবতা খুঁজে পাওয়া দুষ্কর মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনা, চিকিৎসাধীন আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু নিউইয়র্কে জাতিসংঘ মহাসচিবের সঙ্গে সার্কের মহাসচিবের সৌজন্য সাক্ষাৎ মালয়েশিয়ায় ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় মালয়েশিয়ায় বুধবার পবিত্র ঈদুল ফিতর অনুমতি ছাড়া আতশবাজি বিক্রি:মালয়েশিয়ায় ২ বাংলাদেশিসহ গ্রেপ্তার ৩ বাংলাদেশি কর্মীদের প্রশংসায় মালয়েশিয়ার সাবেক মন্ত্রী এম সারাভানান কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে বিমান ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য

কুয়েতে অবৈধ অভিবাসীদের ৩ মাসের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা

প্রবাস বার্তা ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৭:৫৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪
  • / 52

 

কুয়েতে অবৈধ অভিবাসীদের জন্য তিন মাসের সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার। বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দেশটির সরকারি সংবাদ সংস্থা কুনা কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানিয়েছে, যেসব অভিবাসী অবৈধভাবে কুয়েতে বসবাস করছেন তাদের জন্য এ ক্ষমা ঘোষণা করা হয়েছে।

 

পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে এবং শেখ মিশাল আল-আহমেদ আল-জাবের আল-সাবাহ নতুন আমির হওয়ায় এ সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করা হয়েছে। সাধারণ ক্ষমা আগামী ১৭ মার্চ থেকে শুরু হয়ে ১৭ জুন পর্যন্ত থাকবে। আর এ তিন মাসের মধ্যে অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে না দেশটি থেকে।

 

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই তিন মাসের মধ্যে অবৈধ অভিবাসীরা নির্দিষ্ট জরিমানা দিয়ে বৈধ হতে পারবে। বৈধ হতে প্রতিদিনের জন্য সর্বনিম্ন ২ দিনার এবং সর্বোচ্চ ৬০০ দিনার জরিমানা দিতে হবে যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা। যারা জরিমানার অর্থ পরিশোধ করতে পারবে না তারা যেকোনো দিক দিয়ে কুয়েত ছাড়তে পারবেন। এজন্য তাদের কোনো জরিমানা দিতে হবে না। এক্ষেত্রে যারা চলে যাবে তারা নতুন অনুমতি এবং বৈধ কাগজপত্র নিয়ে আবারও কুয়েতে ফিরতে পারবে।

 

আর এই সময়ের মধ্যে যারা জরিমানা দিয়ে বৈধ হবে না বা দেশে ফিরবে না তাদের পরবর্তীতে আটক করা হবে এবং নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে এবং আইন অনুযায়ী জরিমানা আদায় করা হবে।

 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আরো জানিয়েছে যেসব প্রবাসী প্রশাসনিক সমস্যায় আছে এবং যাদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা রয়েছে তাদের রেসিডেন্সি অ্যাফেয়ার্স বিভাগে আবেদন করতে হবে। এরপর যাছাই-বাছাই করে জানিয়ে দেওয়া হবে তারা কুয়েতে থাকার যোগ্য কি না।

 

কুয়েতে বর্তমানে কয়েক হাজার অবৈধ অভিবাসী রয়েছে। যদিও এটির নির্দিষ্ট সংখ্যা প্রকাশ করে না দেশটির সরকার। এর আগে ২০২১ সালেও অবৈধ অভিবাসীদের জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছিল মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম শক্তিশালী দেশটি।

শেয়ার করুন

কুয়েতে অবৈধ অভিবাসীদের ৩ মাসের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা

আপডেটের সময় : ০৭:৫৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪

 

কুয়েতে অবৈধ অভিবাসীদের জন্য তিন মাসের সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার। বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দেশটির সরকারি সংবাদ সংস্থা কুনা কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানিয়েছে, যেসব অভিবাসী অবৈধভাবে কুয়েতে বসবাস করছেন তাদের জন্য এ ক্ষমা ঘোষণা করা হয়েছে।

 

পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে এবং শেখ মিশাল আল-আহমেদ আল-জাবের আল-সাবাহ নতুন আমির হওয়ায় এ সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করা হয়েছে। সাধারণ ক্ষমা আগামী ১৭ মার্চ থেকে শুরু হয়ে ১৭ জুন পর্যন্ত থাকবে। আর এ তিন মাসের মধ্যে অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে না দেশটি থেকে।

 

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই তিন মাসের মধ্যে অবৈধ অভিবাসীরা নির্দিষ্ট জরিমানা দিয়ে বৈধ হতে পারবে। বৈধ হতে প্রতিদিনের জন্য সর্বনিম্ন ২ দিনার এবং সর্বোচ্চ ৬০০ দিনার জরিমানা দিতে হবে যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা। যারা জরিমানার অর্থ পরিশোধ করতে পারবে না তারা যেকোনো দিক দিয়ে কুয়েত ছাড়তে পারবেন। এজন্য তাদের কোনো জরিমানা দিতে হবে না। এক্ষেত্রে যারা চলে যাবে তারা নতুন অনুমতি এবং বৈধ কাগজপত্র নিয়ে আবারও কুয়েতে ফিরতে পারবে।

 

আর এই সময়ের মধ্যে যারা জরিমানা দিয়ে বৈধ হবে না বা দেশে ফিরবে না তাদের পরবর্তীতে আটক করা হবে এবং নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে এবং আইন অনুযায়ী জরিমানা আদায় করা হবে।

 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আরো জানিয়েছে যেসব প্রবাসী প্রশাসনিক সমস্যায় আছে এবং যাদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা রয়েছে তাদের রেসিডেন্সি অ্যাফেয়ার্স বিভাগে আবেদন করতে হবে। এরপর যাছাই-বাছাই করে জানিয়ে দেওয়া হবে তারা কুয়েতে থাকার যোগ্য কি না।

 

কুয়েতে বর্তমানে কয়েক হাজার অবৈধ অভিবাসী রয়েছে। যদিও এটির নির্দিষ্ট সংখ্যা প্রকাশ করে না দেশটির সরকার। এর আগে ২০২১ সালেও অবৈধ অভিবাসীদের জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছিল মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম শক্তিশালী দেশটি।