ঢাকা , রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
প্রবাসীদের দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর মালয়েশিয়ায় চালু হচ্ছে ই-পাসপোর্টের কার্যক্রম প্রবাসীদের ঈদ উদযাপন বাস্তবতা খুঁজে পাওয়া দুষ্কর মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনা, চিকিৎসাধীন আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু নিউইয়র্কে জাতিসংঘ মহাসচিবের সঙ্গে সার্কের মহাসচিবের সৌজন্য সাক্ষাৎ মালয়েশিয়ায় ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় মালয়েশিয়ায় বুধবার পবিত্র ঈদুল ফিতর অনুমতি ছাড়া আতশবাজি বিক্রি:মালয়েশিয়ায় ২ বাংলাদেশিসহ গ্রেপ্তার ৩ বাংলাদেশি কর্মীদের প্রশংসায় মালয়েশিয়ার সাবেক মন্ত্রী এম সারাভানান কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে বিমান ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য

‘প্রবাসীদের সমস্যা ও ভোগান্তি কমাতে ‘প্রবাসী সেল’ গঠনের কাজ চলছে’

আহমাদুল কবির, প্রবাস বা‍র্তা
  • আপডেটের সময় : ০৯:৩৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪
  • / 83

 

প্রবাসীদের সমস্যা ও ভোগান্তি কমাতে ‘প্রবাসী সেল’ গঠনের কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী৤ তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু প্রবাসীদের কল্যাণে বিশেষায়িত সেল গঠন করেছিলেন৤ বিভাগীয় প‍‍র্যায়ে সেই কা‍‍র্যক্রম ছড়িয়ে দেয়া হয়েছিল৤ সেই সেবা সারা দেশে দেয়া হতো৤ প্রধানমন্ত্রীর পরাম‍‍র্শে নতুন করে প্রবাসী সেল গঠনের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে এবং কা‍‍র্যক্রম চলছে বলেও জানা প্রতিমন্ত্রী৤

 

সেন্টার ফর এনআরবি’র উদ্যোগে বিশ্বব্যাপী “ ব্রান্ডিং বাংলাদেশ “ শীর্ষক ওয়ার্ল্ড কনফারেন্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা জানান৤   সিরিজ ২০২৪ এর উদ্বোধনী রবিবার ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে এ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়।  কনফারেন্স সিরিজের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি  প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড: মশিউর রহমান ।

 

এনআরবি সেন্টারের চেয়ারপার্সন এম এস সেকিল চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী এমপি এবং সম্মানিত অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্র বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতি ও সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডঃ এ কে আব্দুল মোমেন এমপি ও লন্ডন টাওয়ার হ্যামলেট কাউন্সিলের সাবেক স্পীকার রাজিব আহমদ । অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

অনুষ্ঠানের শুরুতে কনফারেন্স উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রদত্ত বাণী উপস্থাপন করেন সেন্টারের রিসোর্স পার্সন সাবেক এয়ার চিপ মাশার্ল মশিহুজ্জামান সেরনিয়াবত ও বিভিন্ন খাতে অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করেন সাবেক ব্যাংকার ইশতিয়াক আহমদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বক্তারা দেশের ভাবমূর্তি উন্নয়নে প্রবাসীদের ভূমিকা পালনের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। এছাড়া দেশে প্রবাসীদের জান মালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সরকারের কাছে আহ্বান জানান।

 

অনুষ্ঠানে ২০২৩ সালে সর্বোচ্চ রেমিটেন্স সংগ্রহের জন্য দেশের ১০টি সেরা ব্যাংককে ”টপ টেন ব্যাংক রেমিটেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২৪” ও বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন দেশে আয়োজিত ব্রান্ডিং কনফারেন্স এ অবদান রাখার জন্য ৩টি প্রতিষ্ঠান ও ৪ জন ব্যক্তিকে ”ব্রান্ডিং অ্যাওয়ার্ড ২০২৪” প্রদান করা হয়। রেমিটেন্স খাতে ১ম স্থান অর্জন করে গোল্ড অ্যাওয়ার্ড লাভ করে ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশ পিএলসি এবং বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন ব্রান্ডিং কার্যক্রমে অবদান রাখার জন্য সর্বোচ্চ ”ব্রান্ডিং গোল্ড অ্যাওয়ার্ড ২০২৪” লাভ করে ডাচ বাংলা ব্যাংক পিএলসি।

 

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ডাচ বাংলা ব্যাংকের এমডি একেএম শিরিন, ইসলামি ব্যাংকের এমডি মনিরুল মাওলা সাবেক ব্যাংকার ইশতিয়াক চৌধুরী ও সাবেক লায়ন্স গভর্নর শাহেনা রহমান।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড: মশিউর রহমান বলেন, প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে সরকার আন্তরিক রয়েছে। তাছাড়া সমস্যা সরকারের নজরে আনলে তা সমাধানের চেষ্টা করবে সরকার।

 

প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে মন্ত্রণালয়ে বিশেষ সেল গঠন করা হবে। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড: একে আব্দুল মোমেন বলেন, প্রবাসীদের হয়রানি কমলেও একেবারে নির্মূল হয়নি।

শেয়ার করুন

‘প্রবাসীদের সমস্যা ও ভোগান্তি কমাতে ‘প্রবাসী সেল’ গঠনের কাজ চলছে’

আপডেটের সময় : ০৯:৩৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪

 

প্রবাসীদের সমস্যা ও ভোগান্তি কমাতে ‘প্রবাসী সেল’ গঠনের কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী৤ তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু প্রবাসীদের কল্যাণে বিশেষায়িত সেল গঠন করেছিলেন৤ বিভাগীয় প‍‍র্যায়ে সেই কা‍‍র্যক্রম ছড়িয়ে দেয়া হয়েছিল৤ সেই সেবা সারা দেশে দেয়া হতো৤ প্রধানমন্ত্রীর পরাম‍‍র্শে নতুন করে প্রবাসী সেল গঠনের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে এবং কা‍‍র্যক্রম চলছে বলেও জানা প্রতিমন্ত্রী৤

 

সেন্টার ফর এনআরবি’র উদ্যোগে বিশ্বব্যাপী “ ব্রান্ডিং বাংলাদেশ “ শীর্ষক ওয়ার্ল্ড কনফারেন্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা জানান৤   সিরিজ ২০২৪ এর উদ্বোধনী রবিবার ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে এ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়।  কনফারেন্স সিরিজের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি  প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড: মশিউর রহমান ।

 

এনআরবি সেন্টারের চেয়ারপার্সন এম এস সেকিল চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী এমপি এবং সম্মানিত অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্র বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতি ও সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডঃ এ কে আব্দুল মোমেন এমপি ও লন্ডন টাওয়ার হ্যামলেট কাউন্সিলের সাবেক স্পীকার রাজিব আহমদ । অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

অনুষ্ঠানের শুরুতে কনফারেন্স উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রদত্ত বাণী উপস্থাপন করেন সেন্টারের রিসোর্স পার্সন সাবেক এয়ার চিপ মাশার্ল মশিহুজ্জামান সেরনিয়াবত ও বিভিন্ন খাতে অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করেন সাবেক ব্যাংকার ইশতিয়াক আহমদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বক্তারা দেশের ভাবমূর্তি উন্নয়নে প্রবাসীদের ভূমিকা পালনের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। এছাড়া দেশে প্রবাসীদের জান মালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সরকারের কাছে আহ্বান জানান।

 

অনুষ্ঠানে ২০২৩ সালে সর্বোচ্চ রেমিটেন্স সংগ্রহের জন্য দেশের ১০টি সেরা ব্যাংককে ”টপ টেন ব্যাংক রেমিটেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২৪” ও বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন দেশে আয়োজিত ব্রান্ডিং কনফারেন্স এ অবদান রাখার জন্য ৩টি প্রতিষ্ঠান ও ৪ জন ব্যক্তিকে ”ব্রান্ডিং অ্যাওয়ার্ড ২০২৪” প্রদান করা হয়। রেমিটেন্স খাতে ১ম স্থান অর্জন করে গোল্ড অ্যাওয়ার্ড লাভ করে ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশ পিএলসি এবং বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন ব্রান্ডিং কার্যক্রমে অবদান রাখার জন্য সর্বোচ্চ ”ব্রান্ডিং গোল্ড অ্যাওয়ার্ড ২০২৪” লাভ করে ডাচ বাংলা ব্যাংক পিএলসি।

 

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ডাচ বাংলা ব্যাংকের এমডি একেএম শিরিন, ইসলামি ব্যাংকের এমডি মনিরুল মাওলা সাবেক ব্যাংকার ইশতিয়াক চৌধুরী ও সাবেক লায়ন্স গভর্নর শাহেনা রহমান।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড: মশিউর রহমান বলেন, প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে সরকার আন্তরিক রয়েছে। তাছাড়া সমস্যা সরকারের নজরে আনলে তা সমাধানের চেষ্টা করবে সরকার।

 

প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে মন্ত্রণালয়ে বিশেষ সেল গঠন করা হবে। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড: একে আব্দুল মোমেন বলেন, প্রবাসীদের হয়রানি কমলেও একেবারে নির্মূল হয়নি।