ঢাকা , রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
প্রবাসীদের দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর মালয়েশিয়ায় চালু হচ্ছে ই-পাসপোর্টের কার্যক্রম প্রবাসীদের ঈদ উদযাপন বাস্তবতা খুঁজে পাওয়া দুষ্কর মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনা, চিকিৎসাধীন আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু নিউইয়র্কে জাতিসংঘ মহাসচিবের সঙ্গে সার্কের মহাসচিবের সৌজন্য সাক্ষাৎ মালয়েশিয়ায় ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় মালয়েশিয়ায় বুধবার পবিত্র ঈদুল ফিতর অনুমতি ছাড়া আতশবাজি বিক্রি:মালয়েশিয়ায় ২ বাংলাদেশিসহ গ্রেপ্তার ৩ বাংলাদেশি কর্মীদের প্রশংসায় মালয়েশিয়ার সাবেক মন্ত্রী এম সারাভানান কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে বিমান ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য

প্রত্যাবাসন কর্মসূচি: মালয়েশিয়া থেকে অবৈধ প্রবাসীদের দেশে ফেরার সুযোগ

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া
  • আপডেটের সময় : ০৭:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / 66

 

মালয়েশিয়া থেকে অবৈধ প্রবাসীদের দেশে ফেরার সুযোগ করে দিয়েছে, দেশটির সরকার। শুক্রবার (১ মার্চ) থেকে শুরু হচ্ছে, অভিবাসী প্রত্যাবাসন কর্মসূচি (পিআরএম)।

 

এ কর্মসূচির মাধ্যমে অবৈধ অভিবাসীদের দেশে ফেরার আহবান জানিয়েছে সে দেশের সরকার। প্রত্যাবাসন কর্মসূচি ১ মার্চ থেকে চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে স্বেচ্ছায় নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে।

 

বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক, দাতুক রুসলিন জুসোহ বলেছেন, এই কর্মসূচির মাধ্যমে নথিপত্রবিহীন বিদেশিরা যারা আত্মসমর্পণ করবে তাদের বিরুদ্ধে কোনো বিচার ছাড়াই তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে।

অভিবাসন অপরাধের জন্য তাদের জরিমানা দিতে হবে। নতুন কর্মসূচির আওতায় কোন রকম নথিপত্র ছাড়া মালয়েশিয়া প্রবেশ করে থাকলে তাদের ৫০০ রিঙ্গিত আর ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে খুব বেশি দিন হয়নি এমন অবৈধ অভিবাসীদের জন্য জরিমানা দিতে হবে ৩০০ রিঙ্গিত।

 

তবে, যাদের আটক বা রিমান্ডে নেওয়া হচ্ছে এবং চার্জ করা হচ্ছে তারা পিআরএম প্রোগ্রামে অংশগ্রহণের যোগ্য নয় বলে, রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বার্নামাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা জানিয়েছেন, ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক রুসলিন জুসোহ। তিনি আশা করেন ৩ থেকে ৪ লাখ অবৈধ অভিবাসীরা এ কর্মসূচি গ্রহণ করবে।

 

যারা দেশে ফিরবেন তারা ইমিগ্রেশন অফিসে যে নথিগুলি আনতে হবে তা হল তাদের ফ্লাইট টিকিট, বৈধ ভ্রমণ নথি (পাসপোর্ট) , পাসপোর্ট না থাকলে নিজ দূতাবাস থেকে ইস্যুকরা ট্রাভেল পারমিট যাকে বলা হয় ট্রাভেল পাস।

 

রুলিন বলেন, পিআরএম প্রোগ্রাম সফল করতে ইন্দোনেশিয়া এবং বাংলাদেশসহ বিদেশি দূতাবাসগুলির সহযোগিতা চাইতে শিগগিরই দূতাবাসগুলির সাথে আলোচনায় বসবে অভিবাসন বিভাগ।

শেয়ার করুন

প্রত্যাবাসন কর্মসূচি: মালয়েশিয়া থেকে অবৈধ প্রবাসীদের দেশে ফেরার সুযোগ

আপডেটের সময় : ০৭:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

মালয়েশিয়া থেকে অবৈধ প্রবাসীদের দেশে ফেরার সুযোগ করে দিয়েছে, দেশটির সরকার। শুক্রবার (১ মার্চ) থেকে শুরু হচ্ছে, অভিবাসী প্রত্যাবাসন কর্মসূচি (পিআরএম)।

 

এ কর্মসূচির মাধ্যমে অবৈধ অভিবাসীদের দেশে ফেরার আহবান জানিয়েছে সে দেশের সরকার। প্রত্যাবাসন কর্মসূচি ১ মার্চ থেকে চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে স্বেচ্ছায় নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে।

 

বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক, দাতুক রুসলিন জুসোহ বলেছেন, এই কর্মসূচির মাধ্যমে নথিপত্রবিহীন বিদেশিরা যারা আত্মসমর্পণ করবে তাদের বিরুদ্ধে কোনো বিচার ছাড়াই তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে।

অভিবাসন অপরাধের জন্য তাদের জরিমানা দিতে হবে। নতুন কর্মসূচির আওতায় কোন রকম নথিপত্র ছাড়া মালয়েশিয়া প্রবেশ করে থাকলে তাদের ৫০০ রিঙ্গিত আর ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে খুব বেশি দিন হয়নি এমন অবৈধ অভিবাসীদের জন্য জরিমানা দিতে হবে ৩০০ রিঙ্গিত।

 

তবে, যাদের আটক বা রিমান্ডে নেওয়া হচ্ছে এবং চার্জ করা হচ্ছে তারা পিআরএম প্রোগ্রামে অংশগ্রহণের যোগ্য নয় বলে, রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বার্নামাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা জানিয়েছেন, ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক রুসলিন জুসোহ। তিনি আশা করেন ৩ থেকে ৪ লাখ অবৈধ অভিবাসীরা এ কর্মসূচি গ্রহণ করবে।

 

যারা দেশে ফিরবেন তারা ইমিগ্রেশন অফিসে যে নথিগুলি আনতে হবে তা হল তাদের ফ্লাইট টিকিট, বৈধ ভ্রমণ নথি (পাসপোর্ট) , পাসপোর্ট না থাকলে নিজ দূতাবাস থেকে ইস্যুকরা ট্রাভেল পারমিট যাকে বলা হয় ট্রাভেল পাস।

 

রুলিন বলেন, পিআরএম প্রোগ্রাম সফল করতে ইন্দোনেশিয়া এবং বাংলাদেশসহ বিদেশি দূতাবাসগুলির সহযোগিতা চাইতে শিগগিরই দূতাবাসগুলির সাথে আলোচনায় বসবে অভিবাসন বিভাগ।