ঢাকা , শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
বিনা খরচে আরো ৫০ ক‍‍র্মী মালয়েশিয়ায় যাচ্ছে আজ ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে বিজনেস অটোমেশন সদস্যরা রিয়াদে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আন্ত‍র্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের নানা আয়োজন বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মালয়েশিয়ায় চালু হচ্ছে ই-পাসপোর্ট সেবা বিনা খরচে কর্মী পাঠানো বাড়াতে সকলকে দায়িত্বশীল থাকতে হবে: প্রবাসী কল্যাণ সচিব বিনা খরচে মালয়েশিয়ায় যাচ্ছে আরো ১১৯ ক‍‍র্মী, আজ আনুষ্ঠানিক বিদায় মালয়েশিয়ায় অভিবাসীদের পদচারণ: ২২০টি স্থানে ইমিগ্রেশনের নজরদারি প্রবাসীদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আইনমন্ত্রীর সাথে সেন্টার ফর এনআরবি প্রতিনিধি দলের বৈঠক মুক্তি পেলেন মালয়েশিয়ায় আটক বিএনপি নেতা কাইয়ুম

বছরের শুরুতেই ৬ হাজার প্রবাসীকে আটক করেছে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন

আহমাদুল কবির ও রাকিব হাওলাদার, প্রবাস বার্তা
  • আপডেটের সময় : ০৬:২২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / 41

 

নতুন বছরের শুরু থেকেই মালয়েশিয়ায় লাগাতার বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে দেশটির  ইমিগ্রেশন বিভাগ। অভিযানে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশিসহ  ৬ হাজারের মতো অভিবাসীকে আটক করেছে ইমিগ্রেশন ক‍‍র্তৃপক্ষ । অভিযানগুলোতে আটককৃতদের মধ্যে কতজন বাংলাদেশি, আলাদাভাবে সেই সংখ্যা জানায়নি ইমিগ্রেশন ক‍‍র্তৃপক্ষ৤ মাত্র ৮টি অভিযানে বাংলাদেশিদের সংখ্যা আলাদাভাবে পাওয়া যায়, যা মোট ৫৪৫ জন৤  

 

মালয়েশিয়ার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর যৌথ অভিযানে অংশ নেয়া ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক দাতো’ রুসলিন বিন জুসোহ জানান, আটকদের বৈধ পাসপোর্ট বা ওয়ার্ক পারমিট না থাকা, অতিরিক্ত অবস্থান এবং অভিবাসন আইন লঙ্ঘনের দায়ে তাদের আটক করা হয়েছে। আটক অভিবাসীদের পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রথমে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখা হয় এবং পরে আইনগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়৤

 

ইমিগ্রেশন বিভাগ থেকে পাওয়া তথ্য এবং প্রবাস বার্তা আর্কাইভ তথ্য বিশ্লেষণ করে জানা যায়। ফেব্রুয়ারি মাসে অভিযানগুলোর মধ্যে, ৯ ফেব্রুয়ারি জোহর বাহরুর বিভিন্ন স্থান থেকে ১৫ বাংলাদেশিসহ ৫০ অভিবাসীকে আটক করে। এর আগে ২ ফেব্রুয়ারি সেলাঙ্গর রাজ্যের ক্লাং থেকে ৪৯০ অভিবাসীকে আটক করা হয়৤ ৩ ফেব্রুয়ারি লিটল ইন্ডিয়া খ্যাত ব্রিকফিল্ডস এলাকা থেকে ৯৪ বাংলাদেশিসহ ৫১৩জন আটক হয়৤ এছাড়া ৬ ও ৭ ফেব্রুয়ারি জোহর রাজ্যে ৫০ বিদেশিকে আটক করে অভিবাসন বিভাগ৤ আর ৮ ফেব্রুয়ারি মেলাকা রাজ্যে অভিযানে ১৬ বাংলাদেশিসহ ২৬ অভিবাসীকে আটক করে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ।

 

আর বছরের শুরুর মাস জানুয়ারির প্রথম ৩ সপ্তাহে গোটা দেশে অন্তত  ৮৭০টি অভিযান পরিচালনা করে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ৤  মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক রুসলিন জুসোহ তখন সংবাদ সম্মেলনে জানান, ৮৭০টি অভিযানে মোট  ৯ হাজার ১৬৯ জন অভিবাসীর কাগজপত্র যাচাই করা হয়। এর মধ্য বৈধ কাজপত্র না থাকায় ৪ হাজার ২৬ জনকে আটক অভিবাসন বিভাগ৤ আটককৃতদের মধ্যে ১ হাজার ৪৯৭ জনকে  নিজ দেশে ফেরত পাঠিয়েছে অভিবাসন বিভাগ।

 

অবৈধ ভাবে থাকা অভিবাসীদের পাশাপাশি অবৈধ অভিবাসীদের নিয়োগ দেয়ার অভিযোগে ৪২ জন নিয়োগকর্তাকেও গ্রেপ্তার করে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন ক‍‍র্তৃপক্ষ৤ তাদের বিষয়েও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয় বলে জানান ইমিগ্রেশন ক‍‍র্মক‍‍র্তারা৤

 

বছরের প্রথম মাসের অভিযানগুলো মধ্যে অন্যতম কয়েকটি হলো, ৫ জানুয়ারি সেলাঙ্গর রাজ্যে ৬১ বাংলাদেশিসহ ২০৬ জনকে আটক করা হয়৤ আর ১৩ জানুয়ারি পেরাক রাজ্যে ৮ বাংলাদেশিসহ ১৪১ বিদেশিকে আটক করে অভিবাসন বিভাগ৤ এরপর ১৪ জানুয়ারি জালান তোক জেম্বলের খেলার মাঠ থেকে ৫৯ বাংলাদেশি আটক হয়৤ ২০ জানুয়ারি সেলাঙ্গর রাজ্যের বানডার তাসিক থেকে ২০৫ বাংলাদেশিসহ ৫৬১ জন এবং ২৬ জানুয়ারি বিভিন্ন অভিযানে আরো ৮৫ বাংলাদেশিসহ ২৩২ বিদেশিকে আটক মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভিগ৤

 

মালয়েশিয়ার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর যৌথ অভিযানে অংশ নেয়া ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক দাতো’ রুসলিন বিন জুসোহ জানান, আটকদের বৈধ পাসপোর্ট বা ওয়ার্ক পারমিট না থাকা, অতিরিক্ত অবস্থান এবং অভিবাসন আইন লঙ্ঘনের দায়ে তাদের আটক করা হয়েছে। আটক অভিবাসীদের পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য দেশটির বিভিন্ন ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখা হয়েছে।

 

লাগাতার এই অভিযানের সময় অনিয়মিত বা অবৈধ বাংলাদেশি কর্মীদের সতর্ক থেকে চলাফেরা করার পরামর্শ দিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। আর কর্মীরা কেউ যেন অনিয়মিত না হন এবং কোম্পানি থেকে বাইরে চলে না যান৤ কোন অভিযোগ বা সমস্যা থাকলে সে বিষয়ে লিখিতভাবে হাইকমিশনে অথবা দেশে রিক্রুটিংএকেজেন্সি অথবা মন্ত্রণালয়ে জানানোর অনুরোধ করেছেন সংশ্লিষ্টরা৤

শেয়ার করুন

বছরের শুরুতেই ৬ হাজার প্রবাসীকে আটক করেছে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন

আপডেটের সময় : ০৬:২২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

নতুন বছরের শুরু থেকেই মালয়েশিয়ায় লাগাতার বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে দেশটির  ইমিগ্রেশন বিভাগ। অভিযানে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশিসহ  ৬ হাজারের মতো অভিবাসীকে আটক করেছে ইমিগ্রেশন ক‍‍র্তৃপক্ষ । অভিযানগুলোতে আটককৃতদের মধ্যে কতজন বাংলাদেশি, আলাদাভাবে সেই সংখ্যা জানায়নি ইমিগ্রেশন ক‍‍র্তৃপক্ষ৤ মাত্র ৮টি অভিযানে বাংলাদেশিদের সংখ্যা আলাদাভাবে পাওয়া যায়, যা মোট ৫৪৫ জন৤  

 

মালয়েশিয়ার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর যৌথ অভিযানে অংশ নেয়া ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক দাতো’ রুসলিন বিন জুসোহ জানান, আটকদের বৈধ পাসপোর্ট বা ওয়ার্ক পারমিট না থাকা, অতিরিক্ত অবস্থান এবং অভিবাসন আইন লঙ্ঘনের দায়ে তাদের আটক করা হয়েছে। আটক অভিবাসীদের পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রথমে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখা হয় এবং পরে আইনগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়৤

 

ইমিগ্রেশন বিভাগ থেকে পাওয়া তথ্য এবং প্রবাস বার্তা আর্কাইভ তথ্য বিশ্লেষণ করে জানা যায়। ফেব্রুয়ারি মাসে অভিযানগুলোর মধ্যে, ৯ ফেব্রুয়ারি জোহর বাহরুর বিভিন্ন স্থান থেকে ১৫ বাংলাদেশিসহ ৫০ অভিবাসীকে আটক করে। এর আগে ২ ফেব্রুয়ারি সেলাঙ্গর রাজ্যের ক্লাং থেকে ৪৯০ অভিবাসীকে আটক করা হয়৤ ৩ ফেব্রুয়ারি লিটল ইন্ডিয়া খ্যাত ব্রিকফিল্ডস এলাকা থেকে ৯৪ বাংলাদেশিসহ ৫১৩জন আটক হয়৤ এছাড়া ৬ ও ৭ ফেব্রুয়ারি জোহর রাজ্যে ৫০ বিদেশিকে আটক করে অভিবাসন বিভাগ৤ আর ৮ ফেব্রুয়ারি মেলাকা রাজ্যে অভিযানে ১৬ বাংলাদেশিসহ ২৬ অভিবাসীকে আটক করে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ।

 

আর বছরের শুরুর মাস জানুয়ারির প্রথম ৩ সপ্তাহে গোটা দেশে অন্তত  ৮৭০টি অভিযান পরিচালনা করে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ৤  মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক রুসলিন জুসোহ তখন সংবাদ সম্মেলনে জানান, ৮৭০টি অভিযানে মোট  ৯ হাজার ১৬৯ জন অভিবাসীর কাগজপত্র যাচাই করা হয়। এর মধ্য বৈধ কাজপত্র না থাকায় ৪ হাজার ২৬ জনকে আটক অভিবাসন বিভাগ৤ আটককৃতদের মধ্যে ১ হাজার ৪৯৭ জনকে  নিজ দেশে ফেরত পাঠিয়েছে অভিবাসন বিভাগ।

 

অবৈধ ভাবে থাকা অভিবাসীদের পাশাপাশি অবৈধ অভিবাসীদের নিয়োগ দেয়ার অভিযোগে ৪২ জন নিয়োগকর্তাকেও গ্রেপ্তার করে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন ক‍‍র্তৃপক্ষ৤ তাদের বিষয়েও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয় বলে জানান ইমিগ্রেশন ক‍‍র্মক‍‍র্তারা৤

 

বছরের প্রথম মাসের অভিযানগুলো মধ্যে অন্যতম কয়েকটি হলো, ৫ জানুয়ারি সেলাঙ্গর রাজ্যে ৬১ বাংলাদেশিসহ ২০৬ জনকে আটক করা হয়৤ আর ১৩ জানুয়ারি পেরাক রাজ্যে ৮ বাংলাদেশিসহ ১৪১ বিদেশিকে আটক করে অভিবাসন বিভাগ৤ এরপর ১৪ জানুয়ারি জালান তোক জেম্বলের খেলার মাঠ থেকে ৫৯ বাংলাদেশি আটক হয়৤ ২০ জানুয়ারি সেলাঙ্গর রাজ্যের বানডার তাসিক থেকে ২০৫ বাংলাদেশিসহ ৫৬১ জন এবং ২৬ জানুয়ারি বিভিন্ন অভিযানে আরো ৮৫ বাংলাদেশিসহ ২৩২ বিদেশিকে আটক মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভিগ৤

 

মালয়েশিয়ার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর যৌথ অভিযানে অংশ নেয়া ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক দাতো’ রুসলিন বিন জুসোহ জানান, আটকদের বৈধ পাসপোর্ট বা ওয়ার্ক পারমিট না থাকা, অতিরিক্ত অবস্থান এবং অভিবাসন আইন লঙ্ঘনের দায়ে তাদের আটক করা হয়েছে। আটক অভিবাসীদের পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য দেশটির বিভিন্ন ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখা হয়েছে।

 

লাগাতার এই অভিযানের সময় অনিয়মিত বা অবৈধ বাংলাদেশি কর্মীদের সতর্ক থেকে চলাফেরা করার পরামর্শ দিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। আর কর্মীরা কেউ যেন অনিয়মিত না হন এবং কোম্পানি থেকে বাইরে চলে না যান৤ কোন অভিযোগ বা সমস্যা থাকলে সে বিষয়ে লিখিতভাবে হাইকমিশনে অথবা দেশে রিক্রুটিংএকেজেন্সি অথবা মন্ত্রণালয়ে জানানোর অনুরোধ করেছেন সংশ্লিষ্টরা৤