ঢাকা , রবিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
বোসেলের মাধ্যমে কর্মী পাঠানোর ভুয়া বিজ্ঞাপন থেকে সাবধান সরকারিভাবে ফিজিতে কর্মী নিয়োগ মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি সাংবাদিককে অপহরণের অভিযোগে পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত মালয়েশিয়ায় নির্মাণাধীন ভবণ ধস, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবে কর্তৃপক্ষ মালয়েশিয়ায় নিখোজঁ ৪ বাংলাদেশি আটক, ৩ কর্মীর মৃত্যুতে হাইকমিশনের শোক মালয়েশিয়ায় ভবন ধসে নিহত তিন বাংলাদেশির পরিচয় শনাক্ত লিবিয়া থেকে দেশে ফিরল ১৪৩ বাংলাদেশি, অপেক্ষায় আরও ৩২০ জন মালয়েশিয়ায় ভবন ধসে ৩ বাংলাদেশি কর্মীর মৃত্যু, নিখোজঁ ৪ প্রথমবারের মত তৈরি হচ্ছে বিদেশ ফেরত কর্মীদের তথ্যভান্ডার: প্রবাসী কল্যাণ সচিব বিদেশ ফেরত ২ লাখ কর্মী পাবে ২৭০ কোটি টাকা প্রণোদনা

প্রবাসীদের জন্য সংসদে সংরক্ষিত আসন চেয়ে রিট

Print Friendly, PDF & Email

 

জাতীয় সংসদে নন রেসিডেন্ট বাংলাদেশিজ (এনআরবি) তথা প্রবাসীদের জন্য সংরক্ষিত আসন চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আবুল কালাম আজাদসহ কয়েকজন এ রিটটি করেন।

 

রোববার (৫ নভেম্বর) এ রিটের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশগুপ্ত। হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় গত ১ নভেম্বর এ রিট আবেদন করা হয়। রিট আবেদনের পক্ষে আইনজীবী হচ্ছেন অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম।

 

গত ১৫ অক্টোবর আবুল কালাম আজাদ ও এস এম রফিকুল পারভেজ লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সচিব বরাবর ‘প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী প্রবাসীদের মধ্যে থেকে নিয়োগ করাসহ জাতীয় সংসদে প্রবাসীদের জন্য নির্দিষ্ট সংখ্যক আসন সংরক্ষণের আবেদন’ শীর্ষক একটি আবেদন দেন।

 

ওই আবেদনে বলা হয়, আমরা আবুল কালাম আজাদ ও এস এম রফিকুল পারভেজ বাংলাদেশি আমেরিকা প্রবাসী ও দেশের রেমিট্যান্স যোদ্ধা। বাংলাদেশের সব মানুষের মানবাধিকার ও নাগরিক অধিকার সমগোত্রীয় এবং মৌলিক অধিকারের অন্তর্গত নির্বিশেষে দেশের প্রতিটি নাগরিক আইনি সংবিধানগতভাবে সুরক্ষিত অধিকার সমানভাবে ভোগ করবে। কিন্তু প্রায় আড়াই কোটি প্রবাসী বাংলাদেশি অন্যান্য নাগরিকের মতো সমান সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছেন না।

 

আবেদনে আরও বলা হয়, রেমিট্যান্সযোদ্ধা প্রবাসীদের জন্য সংসদের আসন সংরক্ষণ না করাকে বৈষম্যমূলক আচরণ বলে মনে করি। বৈষম্যমূলক আচরণ বাংলাদেশের সংবিধানের ২৭, ২৮ ও ২৯ অনুচ্ছেদে বর্ণিত মৌলিক অধিকারের পরিপন্থি। রাষ্ট্র ও গণজীবনের সর্বস্তরে নারী-পুরুষের সমান অধিকার লাভ করবেন। কিন্তু প্রবাসী ভাই-বোনেরা সমান অধিকার ভোগ করতে পারছেন না। তারা দেশে-বিদেশে বহুবিধ সমস্যায় জর্জড়িত। প্রবাসীদের কথা বলার জন্য সংসদে কোনো প্রতিনিধি নেই। তাই প্রবাসীদের জন্যও সংসদে আসন সংরক্ষণ করা হোক। এবং এটি প্রবাসীদের জন্য যৌক্তিক ও ন্যায়সঙ্গত আবেদন।

 

ওই আবেদনে সাড়া না পেয়ে তারা ১ নভেম্বর হাইকোর্টে রিট করেন। রিটে আবেদন কেন নিষ্পত্তির নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং প্রবাসীদের জন্য জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না- মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে।

 

রিটকারীদের আবেদন কেন নিষ্পত্তির নির্দেশ দেয়া হবে না এবং প্রবাসীদের জন্য জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না এই মর্মে রুল জারির আবেদন করা হয়েছে।

Tag :

বোসেলের মাধ্যমে কর্মী পাঠানোর ভুয়া বিজ্ঞাপন থেকে সাবধান

প্রবাসীদের জন্য সংসদে সংরক্ষিত আসন চেয়ে রিট

আপডেট: ০৭:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ নভেম্বর ২০২৩
Print Friendly, PDF & Email

 

জাতীয় সংসদে নন রেসিডেন্ট বাংলাদেশিজ (এনআরবি) তথা প্রবাসীদের জন্য সংরক্ষিত আসন চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আবুল কালাম আজাদসহ কয়েকজন এ রিটটি করেন।

 

রোববার (৫ নভেম্বর) এ রিটের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশগুপ্ত। হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় গত ১ নভেম্বর এ রিট আবেদন করা হয়। রিট আবেদনের পক্ষে আইনজীবী হচ্ছেন অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম।

 

গত ১৫ অক্টোবর আবুল কালাম আজাদ ও এস এম রফিকুল পারভেজ লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সচিব বরাবর ‘প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী প্রবাসীদের মধ্যে থেকে নিয়োগ করাসহ জাতীয় সংসদে প্রবাসীদের জন্য নির্দিষ্ট সংখ্যক আসন সংরক্ষণের আবেদন’ শীর্ষক একটি আবেদন দেন।

 

ওই আবেদনে বলা হয়, আমরা আবুল কালাম আজাদ ও এস এম রফিকুল পারভেজ বাংলাদেশি আমেরিকা প্রবাসী ও দেশের রেমিট্যান্স যোদ্ধা। বাংলাদেশের সব মানুষের মানবাধিকার ও নাগরিক অধিকার সমগোত্রীয় এবং মৌলিক অধিকারের অন্তর্গত নির্বিশেষে দেশের প্রতিটি নাগরিক আইনি সংবিধানগতভাবে সুরক্ষিত অধিকার সমানভাবে ভোগ করবে। কিন্তু প্রায় আড়াই কোটি প্রবাসী বাংলাদেশি অন্যান্য নাগরিকের মতো সমান সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছেন না।

 

আবেদনে আরও বলা হয়, রেমিট্যান্সযোদ্ধা প্রবাসীদের জন্য সংসদের আসন সংরক্ষণ না করাকে বৈষম্যমূলক আচরণ বলে মনে করি। বৈষম্যমূলক আচরণ বাংলাদেশের সংবিধানের ২৭, ২৮ ও ২৯ অনুচ্ছেদে বর্ণিত মৌলিক অধিকারের পরিপন্থি। রাষ্ট্র ও গণজীবনের সর্বস্তরে নারী-পুরুষের সমান অধিকার লাভ করবেন। কিন্তু প্রবাসী ভাই-বোনেরা সমান অধিকার ভোগ করতে পারছেন না। তারা দেশে-বিদেশে বহুবিধ সমস্যায় জর্জড়িত। প্রবাসীদের কথা বলার জন্য সংসদে কোনো প্রতিনিধি নেই। তাই প্রবাসীদের জন্যও সংসদে আসন সংরক্ষণ করা হোক। এবং এটি প্রবাসীদের জন্য যৌক্তিক ও ন্যায়সঙ্গত আবেদন।

 

ওই আবেদনে সাড়া না পেয়ে তারা ১ নভেম্বর হাইকোর্টে রিট করেন। রিটে আবেদন কেন নিষ্পত্তির নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং প্রবাসীদের জন্য জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না- মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে।

 

রিটকারীদের আবেদন কেন নিষ্পত্তির নির্দেশ দেয়া হবে না এবং প্রবাসীদের জন্য জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না এই মর্মে রুল জারির আবেদন করা হয়েছে।