1. monir212@gmail.com : admin :
  2. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  3. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ১১:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মালয়েশিয়া প্রবাসীদের সংকট নিরসনে অধিকার পরিষদের তিন দাবী অবৈধ অভিবাসীদের দেশে ফিরতে মালয়েশিয়ায় বিশেষ কাউন্টার প্রশিক্ষণ শেষে ১৩, ৫০০ টাকা পাবেন ফিরে আসা প্রবাসীরা: মন্ত্রী ইমরান আহমদ আমিরাতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ইতালি প্রবেশে বাংলাদেশিদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আবার বাড়ল মালয়েশিয়ায় কর্মীদের ভিসা নবায়নে বিলম্ব, দ্রুত সমাধানের চেষ্টা ইমিগ্রেশনের অর্থ সহায়তা পাবেন দেশে ফেরা ২ লাখ প্রবাসী বিদেশগামী শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিনের আবেদনের মেয়াদ বাড়ল ভূমধ্যসাগরে আবারও নৌকাডুবি, অন্তত ৫৭ জনের মৃত্যু স্পেনের মাদ্রিদে প্রবাসীদের ঈদ আনন্দ উৎসব ও নৈশভোজ

বিদেশগামী কর্মীদের ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছে ফোরাব

প্রবাস বার্তা রিপোর্ট :
  • প্রকাশিত : সোমবার, ১৪ জুন, ২০২১
Print Friendly, PDF & Email

 

সকল বিদেশগামী কর্মীদের করোনা ভ্যাকসিনের আওতায় আনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ফিমেল ওয়ার্কার রিক্রুটিং এজেন্সিজ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ফোরাব)।

ফোরাব বলছে, বিমানের উচ্চ মূল্যে টিকিট কেনা ও সৌদি আরবে ব্যয়বহুল হোটেল কোয়ারেন্টিনে থাকায় ব্যয়ভার বহন করে কর্মীদের বিদেশের কর্মস্থলে যাওয়া প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়ছে। সেই প্রেক্ষিতে বিদেশগামী কর্মীদের ভ্যাকসিনের আওতায় আনা জরুরি হয়ে পড়েছে।

সোমবার (১৪ জুন) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ফিমেল ওয়ার্কার রিক্রুটিং এজেন্সিজ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ফোরাব) নেতারা এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ফোরাব মহাসচিব মোহাম্মদ মহিউদ্দিন। এতে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন ফোরাব সভাপতি আব্দুল আলিম। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, ফোরাবের সিনিয়র সহসভাপতি কে এম মোবারক উল্লাহ শিমুল, বায়রার সাবেক যুগ্ম মহাসচিব আলহাজ আবুল বাশার, বায়রার সাবেক শীর্ষ নেতা নূরুল আমিন, নাসির উদ্দিন মজুমদার (সিরাজ), অ্যাডভোকেট সাজ্জাদ হোসেন, এমডি সোলাইমান, মতিউর রহমান,আহসান হাবিব রাজু, রাওয়াব এর মহাসচিব মাহফুজুর রহমান, মিয়া মোহাম্মদ উল্লাহ,শাহ আলম চৌধুরী, জাহিদ হোসেন, আব্দুস সালাম বাবু,ওয়ামিউল কবির, মো. আলী আজম জালাল, এমডি দেলোয়ার হোসেন ভূঁইয়া ও দেলোয়ার হোসেন জসিম।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, করোনা ভাইরাসের এই মহাদুর্যোগের সময়ে রাষ্ট্রের প্রধানত অর্থনৈতিকনির্ভরতা দিয়েছে প্রবাসী কর্মীদের পাঠানো রেমিট্যান্স। রেমিট্যান্সের এই ধারা ক্রমান্বয়ে সর্বকালের রেকর্ড ভঙ্গ করছে। প্রবাসীদের এই অর্জন আমাদের নতুন করে আশা জাগায় এবং গৌরবান্বিতকরে। দেশের এই অর্জনকে দীর্ঘ স্থায়ী করতে হলে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এখনই সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

এছাড়া অভিবাসী কর্মীদের জন্য অনতিবিলম্বে জনসন কোভিড-১৯ টিকা বা এরকম যেকোন প্রতিরোধমূলক টিকা আমদানি করে বিদেশগামী কর্মীদের দেয়ার জন্য জোর দাবি জানানো হয়। বর্তমানে আমদানিকৃত ফাইজার প্রতিরোধমূলক টিকাটি অন্তত: ৫০ হাজার ডোজ অভিবাসীকর্মীদের জন্য জরুরিভিত্তিতে বরাদ্দকরণে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

শ্রমিক প্রেরণকারী দেশগুলো যেভাবে তাদের বিদেশগামী কর্মীদের আভ্যন্তরীণ স্বাস্থ্য নিরাপত্তা জোরদার করার জন্য কোভিড-১৯ প্রতিরোধটিকা দিচ্ছে। বাংলাদেশেও রেমিটেন্স যোদ্ধাদের কল্যাণে এরূপ ব্যবস্থা গ্রহণ করা একান্ত প্রয়োজন। কিন্তু আমাদের দেশে কোভিড-১৯ প্রতিরোধ টিকার অপ্রাপ্যতা থাকার কারণে কেবলমাত্র ৪০ বছর বয়সের ঊর্ধ্বে ব্যক্তিদের টিকা গ্রহণের জন্য অনলাইনে নিবন্ধনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। যেখানে বিদেশগামী কর্মীদের বয়সসীমা সাধারণত ২১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যেই হয়ে থাকে।

সাম্প্রতিক সৌদি আরবে যাওয়ার জন্য বিদেশগামী কর্মীদের একদিকে উচ্চমূল্যে বিনিময়ে বিমানের টিকেট ক্রয় করতে হচ্ছে। অন্যদিকে ব্যয় বহুল হোটেলে ৭ দিনের জন্য কোয়ারেন্টিনে থাকা বাধ্যতামূলক করে দেয়া হয়েছে। যার ফলে একজন বিদেশগামী কর্মীকে টিকিটসহ লক্ষাধিক টাকা জোগার করতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। বিদেশগামী কর্মীর করোনা টিকা দেয়া হলে তাদের সউদীতে হোটেল কোয়ারেন্টিনে থাকতে হতো না। এই ব্যয়ের মাত্র ২৫ হাজার টাকা একজন বিদেশগামী কর্মীকে সরকার ভর্তুকি হিসেবে দিচ্ছে। অভিবাসন ব্যয় বৃদ্ধির ফলে জনশক্তি রফতানির খাত ক্রমান্বয়ে বিপর্যয়ের দিকে যাচ্ছে।

করোনার প্রথম ধাক্কার পর ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, শ্রীলংকা, মিশর প্রভৃতি দেশ থেকে কর্মী যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও বাংলাদেশ থেকে এখনও কর্মী প্রেরণ করা সম্ভব হচ্ছে। অভিবাসন প্রত্যাশি কর্মীদের টিকা প্রদানের বিষয়টি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় হতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলে নিয়োগকারী দেশসমূহ বাংলাদেশ থেকে কর্মী গ্রহণের ক্ষেত্রে কোন অনীহা প্রকাশ করবে না ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ টিকার প্রথম ডোজ থেকে দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের মধ্যবর্তী এক মাস সময় অতিবাহিত হয়, যা একজন অভিবাসী কর্মীর জন্য সময় সাপেক্ষ ও বিরম্বনামূলক। নেদারল্যান্ডভিত্তিক ঔষুধ কোম্পানী জনসন এন্ড জনসন কোভিড-১৯ টিকা বিদেশগামী কর্মীদের দেয়া হলে জনশক্তি রফতানির খাত বাধাগ্রস্ত হবে না বলে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews