1. monir212@gmail.com : admin :
  2. user@probashbarta.com : helal Khan Probashbarta : Helal Khan
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন

রেমিট্যান্সে ৪ শতাংশ প্রণোদনা চেয়ে প্রস্তাবনা, বাস্তবায়নের আশা মন্ত্রীর

প্রবাস বার্তা রিপোর্ট :
  • প্রকাশিত : শনিবার, ৮ মে, ২০২১
Print Friendly, PDF & Email

 

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের উপর প্রণোদনা ২ শতাংশ থেকে বৃদ্ধি করে ৪ শতাংশ করার জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাবনা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ। শনিবার (৮ মে) “আমি প্রবাসী” অ্যাপের ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে ইমরান আহমদ আরও বলেন, “প্রবাসীদের প্রণোদনা বৃদ্ধির বিষয়টি অর্থ মন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়েছে। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া, আমি আশা করবো অর্থ মন্ত্রণালয় এই বিষয়টি বাস্তবায়নে কাজ করবে। আর এটি বাস্তবায়িত হলে এটি নিশ্চয় প্রবাসীদের জন্য অনেক বড় পাওয়া হবে।”

প্রবাসী কর্মীদের বাধ্যতামূলক সঞ্চয় প্রকল্প প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, “প্রবাসীদের সামাজিক সুরক্ষার কথা চিন্তা করে প্রবাসী কর্মীদের বাধ্যতামূলক সঞ্চয় প্রকল্পের প্রস্তাবও দেয়া হয়েছে। যেন এই প্রবাসী কর্মীদের একটা সঞ্চয় থাকে, সেজন্য এই প্রস্তাবনাটি অর্থ মন্ত্রণালয়ে দেয়া হয়েছে। এটি হলে আমাদের প্রবাসী কর্মীদের জন্য খুব ভালো হয়।”

এছাড়া বিদেশে কর্মী পাঠানোর বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, “করোনার সংক্রমণ রোধে অনেক দেশের ফ্লাইট বন্ধ রয়েছে। এজন্য অনেক দেশের বিভিন্ন কোম্পানিতে কর্মী নিয়োগে স্থগিত রয়েছে। এই সুযোগটা আমরা কাজে লাগাতে পারি। এজন্য আমাদের বিদেশগামী কর্মীদের ট্রেনিং করানো যেতে পারে- সেটি হোক অনলাইনে কিংবা অফলাইনে। তাহলে দেখা যাবে করোনার সংক্রমণ কমলে চাহিদা অনুযায়ী কর্মীদের আমরা দ্রুত বিভিন্ন দেশে কাজে লাগাতে পারবো।”

“আমি প্রবাসী” অ্যাপের ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন এর সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।

বিদেশে দক্ষ কর্মী পাঠানোর বিষয়ে জোর দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব বলেন, “বিশ্বের অনেক দেশে গেলে দেখা যায় বাংলাদেশি কর্মীরা ক্লিনার হিসেবে কাজ করে। কিন্তু ভারতীয় কিংবা পাশ্ববর্তী দেশের কর্মীরা সুপারভাইজার হিসেবে কাজ করে। এজন্য বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষ করে বিদেশে পাঠাতে হবে।”

এতে আরো বক্তব্য রাখেন জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো'(বিএমইটি)র মহাপরিচালক মোঃ শামসুল আলম, অতিরিক্ত সচিব শহীদুল আলম (এনিডিসি), মন্ত্রীর একান্ত সচিব আহমাদুল কবিরসহ মন্ত্রণালয় ও দপ্তর/সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ, বায়রা ও বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিনিধিবৃন্দ ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন। আমি প্রবাসী অ্যাপটি তৈরি করেছে বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews