1. monir212@gmail.com : admin :
  2. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  3. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হোটেল কোয়ারেন্টিনের টাকা পাচ্ছেন সৌদি প্রবাসীরা বিমানবন্দরে আমিরাতগামীদের করোনা পরীক্ষা শুরু ২৮ সেপ্টেম্বর দুবাই যেতে করোনা ভাইরাসের যে টিকা নিতে হবে পিসিআর ল্যাব প্রস্তুত বিমানবন্দরে, ফ্লাইট চালু কবে ? আবুধাবি ও দুবাই যেতে নিয়ম ও টিকা সম্পর্কে জেনে নিন বিমানবন্দরে পিসিআর ল্যাব প্রস্তুত, সরকারি ঘোষণার অপেক্ষায় কর্তৃপক্ষ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সাইডলাইনে সেন্টার ফর এনআরবি’র কনফারেন্স মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৪৫ জন প্রবাসী ১৪ দিনের রিমান্ডে মালয়েশিয়া ফিরতে পারবেন কর্মী ভিসাধারী বাংলাদেশিরা অন্যের পাসপোর্ট দিয়ে টিকা নেয়ার চেষ্টা, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশির ৯ মাসের সাজা

বাংলাদেশ ও ভারতীয় শ্রমিকদের বিকল্প খুঁজছে সিঙ্গাপুর

ওমর ফারুকী শিপন :
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ৭ মে, ২০২১
Print Friendly, PDF & Email

 

সিঙ্গাপুরের বেশ কয়েকটি কোম্পানি ঐতিহ্যগতভাবে ভারত ও বাংলাদেশের শ্রমিকদের উপর নির্ভরশীল ছিল। তবে তারা এখন এর বিকল্প খুঁজছে।

চলতি মাসের ২ তারিখ থেকে সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ, নেপাল, পাকিস্থান ও শ্রীলঙ্কা থেকে ভ্রমন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই নিষেধাজ্ঞার মধ্যে লং টার্ম পাশ হোল্ডার আছে৷

ভারতে করোনা মহামারী খারাপের দিকে গেলে, সিঙ্গাপুরে স্থানীয়ভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যায়৷ ঠিক তখনই সিঙ্গাপুর ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

এদিকে করোনা মোকাবিলায় সিঙ্গাপুরের মাল্টি-মন্ত্রণালয়ের টাস্ক ফোর্সের সহ-সভাপতি ও শিক্ষামন্ত্রী লরেন্স ওয়াং বলেছেন, এই প্রভাব কন্সট্রাকশনের মতো শিল্পগুলোতে প্রভাব ফেলবে এবং সিঙ্গাপুরে অনেক ছোট-মাঝারি শিল্প এবং কনট্রাকটর ক্ষতিগ্রস্থ হবে।

গত ২৬ এপ্রিল দেশটির বিল্ডিং অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন অথরিটি জানিয়েছে, অন্যান্য সহায়তা ব্যবস্থার মধ্যে চীন থেকে শ্রমিক আনতে কোম্পানিগুলোকে নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হবে। তবে কোম্পানিগুলো বলছে, এতে দেশটিতে শ্রমিকের ঘাটতি পূরন হবে না।

এ প্রসঙ্গে নির্মাণ শিল্পের একজন পরিচালক বলেন, চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে চীন থেকে শ্রমিক নিয়োগের ব্যয়ও বেড়ে যাবে।

তিনি আরো বলেন, একজন চীনা শ্রমিকের দৈনিক ব্যয়ের হার প্রতিদিন প্রায় ২০০ থেকে ৩০০ডলার। চীন থেকে নতুন শ্রমিক নিয়োগের কারনে এই ব্যয় ৩০ শতাংশ থেকে ৪০ শতাংশ বেশি হলে আমি বিস্মিত হবো না। আমি মনে করি অনেক কোম্পানি চীনা শ্রমিক নিয়োগের বিষয়ে পিছিয়ে থাকবে, কারণ তাদের বাজেট নেই। কিন্তু এর ফলে প্রজেক্ট আরো বিলম্বিত হবে।

প্রতিদিনের এই ব্যয়ের হারের মধ্যে শ্রমিকের আবাসন, লেভি এবং বীমা হিসাবে মূল্য অন্তর্ভুক্ত থাকে। যা কোম্পানিকে প্রদান করতে হয়। বাংলাদেশ বা ভারতের শ্রমিকদের দৈনিক ব্যয়ের হার এখন প্রায় ১২০ থেকে ১৫০ ডলার। যা অতীতে ছিলো ৭০ থেকে ৮০ পর্যন্ত।

এদিকে স্ট্রেইট কন্সট্রাকশন কোম্পানির সিওও মিস্টার কেনাথ লো বলেন, তার কোম্পানিতে ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ ম্যানপাওয়ার কম।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews