1. monir212@gmail.com : admin :
  2. support@wordpress.org : Support :
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন

অসহায় প্রবাসীর পাশে সাংবাদিক মিরাজ হোসেন গাজী

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশিত : শনিবার, ৬ মার্চ, ২০২১
Print Friendly, PDF & Email

 

মালয়েশিয়ায় প্রতারণার শিকার সর্বশান্ত হয়ে দেশ ফেরা এক প্রবাসীর পাশে দাঁড়িয়েছেন সাংবাদিক মিরাজ হোসেন গাজী। অসহায় এই প্রবাসীর নাম মোঃ মমিন তাঁর বাড়ি পাবনায়। ২০১৮ সালে জিটুজি প্লাস কলিং ভিসায় আইএসএমটি হিউম্যান রিসোর্স ডেভলপমেন্ট লি. রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে মালয়েশিয়া গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু যেই কোম্পানির (চায়না কেমিক্যাল) ভিসায় তাকে পাঠানো হয়েছিল, মালয়েশিয়ায় গিয়ে সেটির অস্তিস্তও পাননি মোঃ মমিন।

নানা ভোগান্তি ও হয়রানির পর দেশে ফিরে আসেন এই প্রবাসী কর্মী। মালয়েশিয়া থেকেই তিনি মিরাজ হোসেন গাজীর সাথে যোগাযোগ করেন। দেশে ফেরার পর দীর্ঘদিনের চেষ্টায় ক্ষতিগ্রস্ত এই প্রবাসীকে ক্ষতিপূরণের টাকা পাওয়ার ব্যবস্থা করেন তিনি। মঙ্গলবার সংশ্লিষ্ট রিক্রুটিং এজেন্সি কর্তৃপক্ষ মোঃ মমিনকে ক্ষতিপূরণের টাকার চেক তুলে দেয়।

চেক পেয়ে কৃতজ্ঞতা জানাতে সাংবাদিক মিরাজ হোসেন গাজীর সাথে দেখা করতে আসেন মোঃ মমিন। সেখানে কথা হয় তার সাথে। মমিন এই প্রতিবেদককে জানান, “মিরাজ ভাই পাশে না থাকলে আমাকে পথে বসতে হতো। চার লাখ টাকা খরচ করে মালয়েশিয়া গেছিলাম। কাজ ও বেতন ঠিকমতো না পাওয়ায় বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে খেতে হয়েছে। ভিসার জন্য আরো ৬৬ হাজার টাকা বাড়ি থেকে নিয়েছি। মিরাজ ভাইয়ের ইউটিউব চ্যানেল ‘প্রবাস তথ্যকেন্দ্র’ এর নিয়মিত দর্শক আমিসহ ঐ কোম্পানির ১৩০ জনই। সেই মাধ্যমেই ওনার সাথে যোগাযোগ করি। ভাই (মিরাজ হোসেন গাজী) আমাদের নিয়ে বাংলাভিশন কয়েকটা রিপোর্ট করে। প্রবাস তথ্যকেন্দ্র চ্যানেলে ভিডিও দেয়। উনি শুরু থেকেই আমাদের জন্য চেষ্টা করেছেন।”

মোঃ মমিন জানান, “আমরা কয়েকবার মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনে গিয়েছি। লিখিত অভিযোগ করেছি। কিন্তু কোন লাভ হয়নি। এক বছরে মাত্র ২/৩ মাস কাজ দিয়েছে সাপ্লাই কোম্পানিতে। বেতন দিয়েছে ৮০০ রিংগিত। দ্বিতীয় বছরের ভিসার জন্য আমি বাড়ি থেকে ৬৬ হাজার টাকা নিয়ে দিয়েছি। তাও ভিসা পাইনি। কিন্তু আমি অবৈধ কর্মী মালয়েশিয়ায় থাকতে চাইনি। তাই মালয়েশিয়া সরকার সু্যোগ দেয়ায় এক বছর আগে দেশে চলে আসি।”

প্রতারণার শিকার এই প্রবাসী কর্মী বলেন, “দেশে এসে মিরাজ ভাইকে কষ্টের কথা বলি। ঋণের টাকা দিতে পারছি না। খুবই কষ্টে দিন যাচ্ছে। ভাই আমাকে প্রথম দিনেই বলেছিলেন, মমিন ভাই আমি আপনার জন্য কিছু একটা করবো ইনশাআল্লাহ। এখন ভাই যেই উপকার করেছে তা আগে চিন্তাও করিনি। আমার-তো কেউ নাই, শিক্ষাদিক্ষা নাই। ভাই না থাকলে আমি তো এজেন্সির কাছে পাত্তাই পেতাম না। ভাইয়ের উপকারের কথা আমি ভাষায় প্রকাশ করতে পারবো না।”

এ প্রসঙ্গে বাংলাভিশন টেলিভিশনের সিনিয়র রিপোর্টার ও প্রবাস খাতের প্রথম ডিজিটাল তথ্যভান্ডার- প্রবাস তথ্যকেন্দ্র’র ফাউন্ডার মিরাজ হোসেন গাজী বলেন, “মমিন ভাইদের সমস্যা সমাধানের জন্য নানাভাবে চেষ্টা করেছি। একাধিক রিপোর্ট করেছি, দূতাবাসে কথা বলেছি, মন্ত্রণালয়ে বলেছি কোন লাভ হয়নি। দূতাবাস থেকে ওনাদের ক্যাম্প পরিদর্শন করেছে। কিন্তু লাভ হয়নি। কারণ সমস্যাটা বড় ছিল। ওনাদের যে কোম্পানির ভিসায় পাঠানো হয়েছিল, সেই কোম্পানি ভুয়া ছিল।”

অভিবাসী কর্মীদের নিয়ে কাজ করা এই সাংবাদিক বলেন, “এখানে শুধু রিক্রুটিং এজেন্সির দায় দিলেই চলবে না। দূতাবাসেরও দায় আছে। ভিসা বা ডিমান্ড যখন সত্যায়ন করা হয়, তখন কোম্পানি পরিদর্শন করার নিয়ম। কিন্তু দূতাবাস সেটা করেনি। শুরুতেই শ্রম উইং নিশ্চিত এখানে অনিয়ম করেছে। আর এই অনিয়মে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন মোঃ মমিনসহ ১৩০ জন।”

মিরাজ হোসেন গাজী জানান, “মমিন ভাই দেশে আসার পরও আমার সাথে যোগাযোগ রাখেন। নিজের অসহায়ত্বের কথা বলেন। আমি তাকে আশ্বস্ত করি তার জন্য কিছু একটা করার। করোনাভাইরাস সংক্রমণের আগে এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট রিক্রুটিং এজেন্সির সাথে কথা বলি। সেসময় বায়রার সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন স্বপনও এজেন্সির মালিকের সাথে কথা বলেন। এরপর করোনার কারণে অনেক দিন চলে যায়। মমিন ভাই আমাকে ফোন দিতে থাকেন। আমিও এজেন্সির মালিকের সাথে কথা বলতে থাকি। শেষ পর্যন্ত অনেক দেনদরবার করে মমিন ভাইয়ের জন্য ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়। এখন এই সর্বশান্ত প্রবাসী কিছু একটা করে চলতে পারবেন।”

শ্রম অভিবাসন নিয়ে কাজ করা এই সাংবাদিক বলেন, কথিত ফ্রি ভিসা বন্ধ করা এবং কোম্পানির ভিসা সত্যায়নের আগে শ্রম উইং এর পরিদর্শনের বিষয়ে কোন আপোষ করা যাবে না। মালয়েশিয়ায় মোঃ মমিনসহ হাজারো প্রবাসীর সমস্যার অন্যতম কারণ কোম্পানি পরিদর্শন না করে ভিসা সত্যায়ন করা। এ বিষয়ে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়কে আরো কঠোর হতে হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews