1. monir212@gmail.com : admin :
  2. user@probashbarta.com : helal Khan Probashbarta : Helal Khan
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৮:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আমিরাতে মধ্যাহ্ন বিরতি আইন কার্যকর হওয়ায় প্রবাসীদের স্বস্তি সৌদি প্রবাসীদের ফ্লাইটের নতুন নির্দেশনা দিল বিমান স্পেনে শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালন বিদেশগামী কর্মীদের দ্রুত ভ্যাকসিন দিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ডিসেম্বরের মধ্যে সব খাত চালু করতে চায় মালয়েশিয়া “বিগো লাইভে” প্রবাসীদের টার্গেট করেন তারা স্পেনের লেলিদায় বাংলাদেশিদের জন্য মসজিদ ও কবরস্থান তৈরির আশ্বাস মালয়েশিয়ায় দূতাবাসকর্মী হারুনুর রশিদের দাফন সম্পন্ন দক্ষিণ আফ্রিকায় কর্মচারীর ছুরিকাঘাতে প্রাণ গেল বাংলাদেশির আমিরাতে ছয় বছর অবৈধভাবে থাকার পর দেশে ফিরলেন ক্যান্সার আক্রান্ত নূর হোসেন

‘ছুটিতে আটকে পড়া প্রবাসীদের পাঠাতে করোনা টিকা জরুরি’

প্রবাস বার্তা ডেস্ক
  • প্রকাশিত : রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
Print Friendly, PDF & Email

 

ছুটিতে আটকে থাকা প্রবাসীদের করোনা ভ্যাকসিন বা টিকা দিয়ে তাদের কর্মক্ষেত্রে পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া জরুরি | ভ্যাকসিন দিয়ে সার্টিফিকেটসহ বিদেশে পাঠানোর জন্য কূটনৈতিক তৎপরতা চালানো হলে, সংশ্লিষ্ট দেশ বাংলাদেশি কর্মীদের নিতে আগ্রহী হতে পারে। এজন্য সংশ্লিষ্ট দেশে বাংলাদেশ দূতাবাস, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান, স্বাস্থ্য এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জরুরি ভিত্তিতে অনলাইলে একটি বৈঠক করতে পারে।

১১ জানুয়ারি  সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ বি এম খুরশিদ আলম  জানান, প্রবাসীদের জন্য  ১ লাখ ২০ হাজার ভ্যাকসিন  রাখা হয়েছে। প্রথম মাসে ৬০ হাজার পরবর্তী মাসে আরো ৬০ হাজার দেয়া হবে। এই ভ্যাকসিনের সঠিক প্রয়োগ শুরু হতে পারে ছুটিতে আটকে পড়া প্রবাসীদের মাধ্যমে।

মার্চের করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর আগে বিভিন্ন দেশ থেকে ছুটিতে এসে আটকে পড়েন প্রায় তিন লাখ কর্মী। তাদের মধ্যে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতারসহ বিভিন্ন দেশের অনেকেই ফিরে যেতে পেরেছেন। তবে এখনো আটকে আছেন অধিকাংশ কর্মী। এর মধ্যে মালয়েশিয়ার কোন কর্মী ফেরত যেতে পারেননি। আটকে পড়া প্রবাসীরা জানিয়েছেন তারা প্রায় ২৫ হাজার কর্মী এখন দেশে আছেন। যাদের অনেকের এরই মধ্যে ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে।

এছাড়াও সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবি, কাতার, কুয়েত, বাহরাইন, মালদ্বীপ, ওমান, জর্ডান, লেবাননসহ বিভিন্ন দেশের এক লখেরও বেশি কর্মী এখনও আটকে আছেন। যাদের ফিরে যাওয়া জরুরি হলেও সংশ্লিষ্ট দেশ কর্মীদের ফেরত নিচ্ছে না। আবার কয়েকটি দেশ ফেরত নিতে চাইলেও অনলাইনে অনুমতির জটিলতায় যেতে পারছেন না অনেকেই। কর্মী নেয়া অধিকাংশ দেশই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে বিদেশি কর্মীদের নিচ্ছে না বলে জানা গেছে।

মালয়েশিয়াতে নতুন করে আবারো লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। ১৮ ফ্রেব্রুয়ারি পর্যন্ত লকডাউন থাকছে দেশটিতে। সংক্রমণ না কমলে বাড়তে পারে লকডাউন। এতে করে সাধারণ কর্মীদের যাওয়া আরো বিলম্বিত হতে পারে। কিন্তু অধিকাংশ নিয়োগদাতা কর্মীদের কাজে যোগ দিতে তাগাদা দিচ্ছে। অন্য দেশগুণলোতেও একই অবস্থা।

এমন পরিস্থিতিতে আটকে পড়া প্রবাসী কর্মীদের দ্রুত ভ্যাকসিনের আওতায় আনা প্রয়োজন। সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সাথে আলোচনা করে কর্মীদের ভ্যাকসিন দিয়ে পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া যেতে পারে। এজন্য প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণায় উদ্যোগ নিতে পারে। দ্রুত অনলাইনে নিবন্ধন করে কর্মীদের ভ্যাকসিন দিয়ে বিদেশে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করলে কর্মীদের অনিশ্চয়তা দূর হবে। প্রয়োজনে আগেই দেশগুলোতে আনুষ্ঠানিক চিঠি দিয়ে এই পদ্ধতির প্রস্তাব দিতে পারে সরকার।

লেখক: সিনিয়র রিপোর্টার – বাংলাভিশন ও ফাউন্ডার – প্রবাস তথ্যকেন্দ্র।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews