1. monir212@gmail.com : admin :
  2. support@wordpress.org : Support :
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন

মালদ্বীপে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস পালিত

মাহামুদুল, মালদ্বীপ :
  • প্রকাশিত : শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০
Print Friendly, PDF & Email

 

মুজিববর্ষের আহবান, দক্ষ হয়ে বিদেশ যান প্রতিপাদ্য নিয়ে মালদ্বীপে বাংলাদেশ হাইকমিশনে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস উদযাপন করা হয়েছে। শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) দূতাবাসের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন দেশটিতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান।

বক্তব্যের শুরুতে রাষ্ট্রদূত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে স্মরণ করে বলেন, বঙ্গবন্ধু যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিল সেটি বাস্তবায়ন করার জন্য তাঁর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চেষ্টা করে যাচ্ছেন, কিন্তু শুধুমাত্র সরকারের একার পক্ষে দেশের উন্নতি ও অগ্রগতির জন্য যথেষ্ট নয়। আমাকে আপনাকে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে তাহলে সোনার বাংলা গড়া সম্ভব হবে।

প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের যে কোন প্রয়োজনে হাইকমিশনার অফিসে আসবেন আমাদের সাথে কথা বলবেন, আমাদেরকে আপনার মূল্যবান পরামর্শ দিবেন,আমরা চেষ্টা করব আপনাদেরকে সেবা দিতে। এছাড়া মালদ্বীপের সরকারের সাথে আমাদের যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এবং ব্যাবসা বাণিজ্য উন্নত করতে পারি কি ভাবে আমাদের সেই চেষ্টা আছে এবং থাকবে।

তিনি আরও বলেন দেশের সীমানা এক ইঞ্চি বাড়ানো সম্ভব না হলেও কাজের মাধ্যমে আমরা সারাবিশ্বে স্থান করে নিতে পারি। এজন্য প্রয়োজন যোগ্যতা অর্জন ও কারিগরী কাজে পারদর্শী হওয়া।”গতানুগতিক শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরী শিক্ষা অর্জনের ওপর জোর দিতে হবে। এছাড়া বিদেশি ভাষা, প্রধানত ইংরেজি শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।

তিনি বলেন আমি যখন মার্চ মাসে মালদ্বীপ আসি তখন এক বাংলাদেশী ভাইয়ের মোটরসাইকেলে করে বাংলাদেশি গেস্টহাউস গুলোতে ঘুরে দেখেছি তাদের খাবার ও চিকিৎসা ব্যবস্থা কি? আমি ঘুরে দেখে খুব একটা সন্তুষ্টি লাভ করতে পারিনি,তারা কি কষ্ট করে থাকে ,আমি একজন সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারী হিসেবে আমার নৈতিক দায়িত্ব এবং হাইকমিশনের সবার নৈতিক দায়িত্ব আপনাদের সেবা দেওয়া।

রাষ্ট্রদূত বলেন, মালদ্বীপ আসার পরে আমি যখন শুনেছি আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশগুলো থেকে শ্রমিক আসে  প্রবাসে ৭০ থেকে ৮০ হাজার টাকা খরচ করে, আর আমার দেশের শ্রমিক আসতে হয় তিন লাখ ৪ লাখ টাকা খরচ করে, আমি শুনে মর্মাহত হয়েছি। এই বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার এবং বাংলাদেশ হাইকমিশনার কাজ করা যাচ্ছে কিভাবে কম খরচের মাধ্যমে শ্রমিক বিদেশে আসতে পারে আপনার ও আমাদেরকে সহযোগিতা করবেন।

এরপর বিশ্বজুড়ে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সাফ্যল্য ও এক বছর মালদ্বীপ হাইকমিশনার অফিসে কাজের অগ্রগতি নিয়ে দুটি প্রামাণ্যচিত্র দেখানো হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশনের প্রোজেক্ট অফিসার মিস তাবাসসুম মখদুমা,মালদ্বীপের সুনামধন্য ব্যাবসায়ী ও গ্লোবাল রীচ  প্রাঃ লিঃ এর সিইও, ২০১৮ সালে বিদেশে বাংলাদেশী পণ্যের আমদানীকারক ক্যাটাগরিতে মালদ্বীপ থেকে সিআইপি নির্বাচিত ব্যক্তি মো,সোহেল রানা, এন.বি.এল মানি ট্রান্সফার (মালদ্বীপ) এর লোকাল ডাইরেক্টর হান্নান খান কবির।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews