1. monir212@gmail.com : admin :
  2. support@wordpress.org : Support :
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৩:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

কুয়েতে এখনো রিমান্ডে এমপি পাপুল, দেশে দুদক ও সিআইডি মাঠে

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৭ জুন, ২০২০
Print Friendly, PDF & Email

 

মানব ও অর্থ পাচার এবং কর্মীদের সাথে প্রতারণার নানা অভিযোগে কুয়েতে গ্রেফতার সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুল এখনো রিমান্ডে রয়েছেন। দেশটির সিআইডি তাকে বিরতি দিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। আরব টাইমসের মঙ্গলবারের খবর বলছে, বাংলাদেশি সংসদ সদস্য কুয়েতের সরকারি দুই কর্তকর্তাকে ২১ লাখ কুয়েতি দিনার ঘুষ দিয়েছেন ভিসা বানিজ্যের জন্য। এরমধ্যে একজনকে ১১ লাখ দিনার চেকের মাধ্যমে। আরেক জনকে নগদ ১০ লাখ দিনার দিয়েছে। বাংলাদেশি মূদ্রায় যা মোট ৫৭ কোটি টাকার মতো।

কুয়েতের আইন অনুযায়ি কোন অভিযুক্তকে ২১ দিন পর্যন্ত ডিটেনশনে রাখা যায়। এমপি পাপুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গুরুতর বিবেচনায় তাকে ২১ দিনই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রাখা হতে পারে বলে ধারণা করছেন কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসের এক কর্মকর্তা। তিনি প্রবাস বার্তাকে জানান, দূতাবাসকে প্রথম দিকে কুয়েত সরকারের পক্ষ থেকে তথ্য দেয়া হলেও আর কিছু জানানো হচ্ছে না। তাই তারা এখন কোন নতুন তথ্য জানেন না।

ঢাকায় সিআইডিও মাঠে নেমেছে আলোচিত এই ঘটনার অনুসন্ধানের। এরই মধ্যে মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্টদের কাছে তথ্য নিতে যোগাযোগ চলছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র। এ বিষয়ে সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইমের ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ এই প্রতিবেদককে জানান, “বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি। সংশ্লিষ্টদের কাছে তথ্য সংগ্রহ করছি। পর্যাপ্ত তথ্য পেলে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে।”

এদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনও অনুসন্ধান শুরু করেছে। এমপি পাপুল, তার স্ত্রী ও শালিকার বিষয়ে নানা তথ্য সংগ্রহ করছে দুদক। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম।

৬ জুন শনিবার রাতে এমপি পাপুলকে আটক করে অফিসে নিয়ে যায় সিআইডি। পরদিন সকাল দশটার দিকে তাকে সিআইডি অফিস থেকে আদালতে নেয়া হয়। আদালতের মাধ্যমে এখন কুয়েত সিআইডির রিমান্ডে রয়েছেন বাংলাদেশি সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুল। মানবপাচার, মানিলন্ডারিং, কর্মী নিয়োগে অনিয়ম, কর্মীদের সাথে প্রতারণাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এসব বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে কুয়েতের সংবাদ মাধ্যমগুলো।

২০১৮ সালের নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লক্ষ্মীপুর ২ আসন থেকে অংশ নেন পাপুল। ভোটের ১৫ দিন আগে মহাজোটের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বসিয়ে দেন তিনি। শুধু তাই নয়, নির্বাচনে স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সমর্থনও নেন। হয়ে যান এমপি। চমক এখানেই শেষ নয়। নিজের স্ত্রী সেলিনা ইসলামকে সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্যও বানিয়ে নেন পাপুল। ৯০ এর দশকে সাধারণ কর্মী হিসেবে কুয়েত গেলেও এখন অঢেল অর্থ সম্পদের মালিক পাপুল। কুয়েতে রয়েছে  মারাফিয়া কুয়েতিয়া নামের একটি কোম্পানী। এই কোম্পানীকে ব্যবহার করেই নানা অনিয়ম করতেন বলে অভিযোগ উঠছে পাপুলের বিরুদ্ধে।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews