1. monir212@gmail.com : admin :
  2. user@probashbarta.com : helal Khan Probashbarta : Helal Khan
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৪৬ অপরাহ্ন

বায়রা নির্বাচনের ভোটার তালিকা, আপিলে মহাঅনিয়ম !

বিশেষ প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত : বুধবার, ৭ এপ্রিল, ২০২১
Print Friendly, PDF & Email

 

বিদেশে কর্মী প্রেরণকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সিস-বায়রা নির্বাচনের জন্য মঙ্গলবার চুড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। তালিকা প্রকাশের পর থেকেই তীব্র সমালোচনা চলছে এই খাতের মধ্যে। ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেয়া ও যুক্ত করার ক্ষেত্রে বড় ধরণের অনিয়ম হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, ভোটার তালিকার বিষয়ে আপিল শুনানিতে অনেককে একতরফাভাবে বাদ দেয়া হয়েছে আবার অনেককে অনিয়মের মাধ্যমে যুক্ত করা হয়েছে। বিশেষ করে মালয়েশিয়া শ্রমবাজারে আলোচিত ১০ রিক্রুটিং এজেন্সির বায়রায় বকেয়ার কারণে আট জন বাদ পড়লেও, বকেয়া থাকার পরও রাখা হয়েছে দু’জনকে।

এই দশ জনের মধ্যে খসড়া ভোটার তালিকায় ছিলো পাঁচ জনের নাম।  কিন্তু বায়রা সচিবালয়ে বকেয়া থাকায় তাদের চুড়ান্ত ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। এই পাঁচ এজেন্সি হলো, আমিন ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলস , ইউনিক ইস্টার্ন লিমিটেড, ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনাল, আইএসএমটি ইউম্যান রিসোর্স লিমিটেড, আল ইসলাম ওভারসীস। এই পাঁচ জনেরই বাকি রয়েছে ৯ লাখ থেকে শুরু করে ৭৪ লাখ পর্যন্ত। আর টিকে যাওয়া রাব্বি ইন্টারন্যাশনাল ও প্রান্তিক ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরিজমের মোট ৫৪ লাখ টাকা বকেয়ার পরও তারা ভোটার হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে আল ইসলাম ওভারসীস এর মালিক জয়নাল আবেদিন জাফর বলেন, “আমাকে না জানিয়ে এক তরফাভাবে ভোটার তালিকা থেকে বাদ দিয়েছে আপিল কমিটি। আমার নাম খসড়া তালিকায় ছিলো আর বায়রা আমার কাছে কোন টাকা পাবে না। মালয়েশিয়ার জন্য যে ডোনেশন নয় লাখ টাকার কথা বলা হচ্ছে, উল্টো আমি আরো বেশি দিয়েছি বায়রাকে। শেষ দিকে আমার ১২০০ কর্মীর ফ্লাইটই হয়নি। তাহলে তাদের টাকাতো দেয়ার কথা না। কিন্তু সবচেয়ে বড় কথা, কোন মহলের অভিযোগের ভিত্তিতে, আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে এক তরফাভাবে আমাকে বাদ দেয়া হয়েছে। এটা বেআইনি কাজ করেছে আপিল কমিটি।”

খসড়া তালিকায় নাম থাকার পরও বাদ দেয়া হয়েছে ইউনিক ইস্টার্ন প্রাইভেট লিমিটেডের মালিক ও বায়রার সাবেক সভাপতি নূর আলীকেও। তিনি এ প্রতিবেদদকে বলেন, প্রথম দিকে বায়রাকে ডোনেশনের সকল টাকা পরিশোধ করা হয়েছে। শেষ দিকে শ্রমবাজার বন্ধ হওয়ায় ম্যানপাওয়ার ক্লিয়ারেন্স হলেও কর্মী যায়নি। এতে করে কিছু টাকা বকেয়া থাকতে পারে। কিন্তু আপিল শুনানিতে তাকেও নোটিশ করা হয়নি।

বাদ পড়াদের মধ্যে রয়েছেন বায়রার সাবেক মহাসচিব ও ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুহুল আমিন স্বপন। তিনি বলেন, “আমাকে বাদ দিতে হলে আগে নোটিশ করতে হবে। আমার বক্তব্যও শুনতে হবে, বায়রার নিয়ম এবং দেশের প্রচলিত আইন সেটাই। খসড়া তালিকায় নাম ছিলো কিন্তু অজানা কারণে আমাকেসহ অনেককে কোন শুনানি ছাড়া বাদ দেয়া হয়েছে। এটা বায়রার সাধারণ সদস্যদের সাথে অন্যায় করা হয়েছে। আত্মপক্ষ সমর্থন ছাড়া আপিল নিষ্পত্তি হতে পারে না।  রাতের অন্ধকারে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে চুড়ান্ত ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেয়া নজিরবিহীন। এজন্য আমিসহ সাধারণ সদস্যরা বায়রা প্রশাসক ও মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছি। আশা করি সেখান থেকে ন্যায় বিচার পাবো।”

একই অভিযোগ করেছেন মেসার্স আবিদ এয়ার ট্রাভেন্স এন্ড ট্যুরস এর স্বত্তাধিকারি কে এম মোবারক উল্লাহ শিমুল, পূরবী ইন্টারন্যাশনালের স্বত্তাধিকারি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, সোনার বাংলা কৃষি খামার এজেন্সির ব্যবস্থাপনা অংশিদার কেফায়েত উল্লাহ মামুন, মেসার্স আল মিনার ওভারসীজ এর ব্যবস্থাপনা অংশিদার মো. আক্তার হোসেন, মেসার্স যমুনা ওভারসীজ এর স্বত্তাধিকারি মতিউর রহমান খানসহ বেশ কয়েকজন। তারা সকলেই বায়রা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তারা বলেন, নোটিশ না করে, আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে অগণতান্ত্রিকভাবে নান অযুহাতে বায়রার চুড়ান্ত ভোটার তালিকা থেকে তাদেরকে বাদ দেয়া হয়েছে। এবিষয়ে প্রতিকার চেয়েছেন রিক্রুটিং এজেন্সির মালিকরা।

ভোটার তালিকায় বিষয়ে আপিল শুনানি অনুষ্ঠিত হয় ৪ ও ৬ এপ্রিল। আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. আব্দুস সালাম আজাদ।  বাদ পড়া আলোচিত পাঁচ জনের বিষয়ে এ প্রতিবেদকে তিনি বলেন, “তাদের বিরুদ্ধে বকেয়া সংক্রন্ত অভিযোগ ছিলো আপিল বোর্ডে। তাই তাদের বাদ দেয়া হয়েছে।”

নিয়ম অনুযায়ি অভিযুক্তদের আপিল শুনানিতে অংশ নেয়া বা আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য নোটিশ করা হয়েছিলো কিনা? এমন প্রশ্নে জবাবে তিনি বলেন, “খুব কম সময়ে সব শেষ করতে হয়েছে, তাই  নোটিশ করা হয়নি।”

নোটিশ ছাড়া একতরফাভাবে কাউকে ভোটার তালিকা থেকে বাদ দিলেন কিভাবে? এমন প্রশ্নের কোন সঠিক জাবাব দিতে পারেননি তিনি। একইসাথে তিনি বলেন, “এখানে নির্বাচন পরিচালনা কমিটিরও কিছু ভুল ছিলো। আর এবারের পরিস্থিতি একটু ভিন্ন।”

আর খড়সা তালিকায় না থাকলেও চুড়ান্ত তালিকায় স্থান পেয়েছে রাব্বি ইন্টারন্যাশনাল ও প্রান্তিক ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরিজম। এই দুটি এজেন্সিও মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো ১০ জনের মধ্যে ছিলো। তাদেরও বকেয়া রয়েছে বায়রা সচিবালয়ে। এরমধ্যে রাব্বি ইন্টারন্যাশনালের ৪২ লাখ ৫৯ হাজার ৩০০ টাকা এবং প্রান্তিক ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরিজমের ১২ লাখ ২৭ হাজার টাকা। কিন্তু খসড়ায় না থাকলেও আপিলে অলৌকিকভাবে তাদের ঠাই হয়েছে চুড়ান্ত ভোটার তালিকায়।

এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, এই দুটি এজেন্সির খসড়ায় নাম ছিলো না। আয়কর সংক্রান্ত কাগজপত্রের কারণে। তারা আপিল করে কাগজ দিয়েছে এবং সব সঠিক পাওয়ায় চুড়ান্ত তালিকায় নাম দেয়া হয়েছে। এই দুই এজেন্সিরও ৫৪ লাখের বেশি বকেয়া আছে এবং সেই তালিকা আপনার কাছে আছে বলেছেন, তাহলে বকেয়ার কারণে অন্যরা বাদ পড়লে এই দুজন কিভাবে ভোটার হলেন? এমন প্রশ্নে আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, তাদের বিরুদ্ধে এ বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি।

বায়রা সচিবালয়ের তথ্য মতে, মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর জন্য  ১০ রিক্রুটিং এজেন্সি কর্মী প্রতি এক হাজার টাকা করে বায়রাকে ডোনেশন দেয়ার কথা ছিলো। কিন্তু শেষের দিকে অনেকেই টাকা পরিশোধ করেননি। ২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৬২ জন কর্মীর মোট ২৫ কোটি ৯৮ লাখ ৬২ হাজার টাকা দেয়ার কথা ছিলো বায়রাকে। সেখানে পরিশোধ করা হয় ১৯ কোটি ৮১ লাখ ৯৩ হাজার ৯০০ টাকা। আর বাকি আছে ৬ কোটি ১৬ হাজার ৬৮ হাজার ১০০ টাকা।

আগামী ২২ মে বায়রার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার তারিখ নির্ধারিত ছিলো। এরমধ্যে মঙ্গলবার ( ৬ এপ্রিল)  মন্ত্রণালয়ের পরিচালকের দায়িত্বরত অতিরিক্ত সচিব সোলেমান খান সই করা এক আদেশে বলা হয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের লাইসেন্সপ্রাপ্ত সকল সংগঠনের বার্ষিক সাধারণ সভা ও কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠানের বিষয়ে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় বৃদ্ধি করা হলো। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে এই আদেশ দেয়া হয়েছে। বায়রা যেহেতু বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে লাইসেন্সপ্রাপ্ত, তাই  সংগঠনটির নির্বাচনও পিছিয়ে যেতে পারে বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে জানতে, বায়রা প্রশাসক নূর মোহাম্মদ মাহবুবুল হককে ফোন দেয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews