1. monir212@gmail.com : admin :
  2. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  3. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
হোটেল কোয়ারেন্টিনের ভর্তুকি পেয়ে সৌদি প্রবাসীর স্বজনদের স্বস্তি ৩ বছরে খোলা যায়নি মালয়েশিয়া শ্রমবাজার, ৮ মাস মেয়াদোত্তীর্ণ এমওইউ করোনাকালে মালয়েশিয়ায় ১ লাখ ৬৫ হাজার বেকার দক্ষিণ আফ্রিকায় ফের বাংলাদেশি খুন দুবাইয়ে রাউজান সমিতির মতবিনিময় সভা সাংবাদিকদের মালদ্বীপে স্বাগত জানালো বাংলাদেশ দূতাবাস সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রীর সৌদি আরবে দেড় হাজার অবৈধ সিমসহ ৭ বাংলাদেশি গ্রেফতার মানবপাচার আইনে হয়রানি বন্ধে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করলেন বায়রার সাবেক নেতারা স্পেনে বাংলাদেশি কোম্পানির ভ্রাতৃ সমাবেশ

মালয়েশিয়ায় লকডাউন বৃদ্ধি না করার সিদ্ধান্ত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়য়ের

আহমাদুল কবির
  • প্রকাশিত : বুধবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২১
Print Friendly, PDF & Email

 

মালয়েশিয়ায় করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশটিতে মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও)  লকডাউন ১৩ জানুয়ারি থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ধার্য করা হয়। কিন্তু নানা আলোচনা সমালোচনার মুখে দেশটির সরকার লকডাউন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ৪ ফেব্রুয়ারির পর থেকে নতুন করে লকডাউন আর বৃদ্ধি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক তান শ্রী ডা: নুর হিশাম আবদুল্লাহ ভার্চ্যুয়াল মিডিয়া সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “আমরা বুঝতে পারছি লকডাউনে আমাদের দেশের অর্থনীতি মারাত্মক হুমকির মুখে পড়েছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে আমাদের জিডিপি কমে যাবে। তাই আগামী ৪  ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত লকডাউন অনুসরণ করা হবে। আমরা এমসিও দীর্ঘায়িত করতে চাই না।”

তবে পরে প্রয়োজনে শর্ত সাপেক্ষ কন্ডিশনাল মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (সিএমসিও) আগের মতো জারি করা হতে পারে। এছাড়াও বর্তমানে দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণ স্থিতিশীল পর্যায়ে রয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, আক্রান্তের সংখ্যায় আরো নামিয়ে আনা যাবে। ডা: হিশাম আরো বলেন, ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে দেশে ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু করা হবে।

প্রথমদিকে প্রায় পাঁচ লাখ টিকা প্রদানের কার্যক্রম শুরু করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, যা চলবে মার্চ মাস থেকে মে মাস পর্যন্ত। ইতোমধ্যে কোভিড-১৯ চিকিৎসা বেগবান করতে ১৩০টি বেসরকারি হাসপাতালের সাথে কথা হয়েছে। এতে ৯৫টি হাসপাতাল রাজি হয়েছে। সেখানে দ্রæত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে আইসিইউ ও ভেন্টিলেটরসহ প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি প্রস্তুত করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews