1. monir212@gmail.com : admin :
  2. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  3. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিমানবন্দরে আজও হচ্ছে না করোনা পরীক্ষা, বাতিল হলো ফ্লাইট পতুর্গালে সিটি নির্বাচনে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে কাউন্সিলর পদে বিজয়ী শাহ আলম “আশা ছিল পিসিআর ল্যাব চালু করে প্রবাসীদের নিয়েই আমিরাত যাবো” সাত দিনের আমিরাত সফরে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ সাত দিনের সফরে দুবাই যাচ্ছেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ২৩ দিনে ১৩৯ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হোটেল কোয়ারেন্টিনের টাকা পাচ্ছেন সৌদি প্রবাসীরা বিমানবন্দরে আমিরাতগামীদের করোনা পরীক্ষা শুরু ২৮ সেপ্টেম্বর দুবাই যেতে করোনা ভাইরাসের যে টিকা নিতে হবে পিসিআর ল্যাব প্রস্তুত বিমানবন্দরে, ফ্লাইট চালু কবে ?

মালয়েশিয়ায় বৈধতার পদ্ধতি ও খরচ

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া
  • প্রকাশিত : শনিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২০
Print Friendly, PDF & Email

 

চলতি বছরের নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে অনিয়মিত অভিবাসীদের বৈধকরন প্রক্রিয়া। বিশেষ করে ২০১৬ সালে বাংলাদেশী এবং অন্যন্যা দেশের শ্রমিকরা প্রতারণা ও বিভিন্ন কারণে বৈধ হতে পারেননি তারা এবার বৈধ হতে পারবেন। পূর্বের অভিজ্ঞতার আলোকে প্রতারণা জালিয়াতি রোধে সরকার এবার বিভিন্ন ইতিবাচক পদক্ষেপ ও নিয়েছে মালয়েশিয়া সরকার।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে দেশটির অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতোক সেরী খাইরুল দাযায়মি দাউদ বলেছেন, এবারের বৈধকরন রিকলিব্রেশন প্রক্রিয়ায় দুই থেকে আাড়াই লাখ শ্রমিক বৈধ করতে পারবো। দেশে বর্তমানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অবৈধ শ্রমিক হ্রাস করাই সরকারের মূল উদ্দেশ্য। বৈধকরণ প্রক্রিয়া সম্পর্কে খায়রুল দাজামি বিস্তারিত বলেন, এবার রিকলিব্রেশন ঘোষণার পর ইতিমধ্যেই ৪৭৮ নিয়োগদাতা কোম্পানির কাছ থেকে দুই হাজার আবেদন পাওয়া গেছে। এছাড়া নিয়োগদাতারা চাইলে কারাবন্দী ডিটেনশন ক্যাম্পে আটক শ্রমিকদের শর্ত সাপেক্ষে বৈধকরণ করতে পারেন। সরাসরি অনলাইনে www.mi.gov.my আবেদন গ্রহন করা হচ্ছে, কোন এজেন্ট বা দালাল নিয়োগ করা হয়নি। মালিকগন সরাসরি তাদের শ্রমিকদের নিয়োগ দিবেন। কোন ৩য় পক্ষ নেই। তবে নিয়োগদাতারা কতজন শ্রমিক তাদের কোম্পানিতে নিয়োগ দিতে পারবেন তা শ্রম মন্ত্রনালয় থেকে অনুমোদন নিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক বলেন,আবেদন গৃহীত হওয়ার পর প্রথমে কর্মী নির্বাচন এবং তাদের নির্ধারিত মেডিকেল সেন্টারে স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন করে রিপোর্ট জমা দিতে হবে। তারপর নিয়োগকর্তারা ভিসার জন্য চুড়ান্ত আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের সময় যে সমস্ত ফি পরিশোধ করতে হবে তা হচ্ছে জনপ্রতি, রিকলিব্রেশন ফি ১৫ শ রিংগিত, লেভী কনস্ট্রাকশন ও ম্যানুফ্যাকচারিং এর জন্য ১৮৫০ রিংগিত, বৃক্ষরোপণ ও কৃষি খাতের জন্য ৬৪০ রিংগিত, পাস ফি ৬০ রিংগিত, ভিসা প্রসেসিং ফি ১২৫ রিংগিত এবং ৫ রিংগিত, জাতিভেদে আরো ২০ মালয়েশিয়ান রিংগিত পরিশোধ করতে হবে। যদি কোন শ্রমিক এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে ব্যর্থ হন তাহলে তাকে নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। এক্ষেত্রে তাদের দেশে ফেরত যাওয়ার বিমান টিকিট সহ ৫০০ রিংগিত জরিমানা দিতে হবে।

এ বিষয়ে ১৫টি দেশের দূতাবাস প্রধানদের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। তারা আমাদের এই রিকলিব্রেশন প্রকল্প কে আন্তরিক ভাবে স্বাগত জানিয়েছেন। তাদের পক্ষ থেকে এবিষয়ে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সহযোগিতা করার কথা ব্যক্ত করেছেন।
শ্রমিক বৈধকরণ রিকলিব্রেশন কার্যক্রম টি চলবে আগামী বছরের জুন পর্যন্ত ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews