1. monir212@gmail.com : admin :
  2. support@wordpress.org : Support :
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০২:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক পেলেন ব্র্যান্ডলরেট পুরষ্কার

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৭ জুলাই, ২০২০
Print Friendly, PDF & Email

 

মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক পেলেন ব্র্যান্ডলরেট পুরষ্কার। নভেল করোনা সংক্রমনরোধে ব্যতিক্রমী ভূমিকা এবং নেতৃত্বের জন্য দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক ডাঃ নূর হিশাম আবদুল্লাহকে ব্র্যান্ডলরেট মোস্ট আউটস্ট্যান্ডিং ব্র্যান্ডলিডারশিপ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে। শুক্রবার (১৭ জুলাই) দ্য ওয়ার্ল্ড ব্র্যান্ডস ফাউন্ডেশনের (টিডব্লিউবিএফ)  সভাপতি ডঃ কে কে জোহান (আন্তর্জাতিক) এবং চেয়ারম্যান তান শ্রী রেইনার অ্যালথফ এক অনাড়ম্বর অনুষ্টানের মধ্য দিয়ে তাকে এ সম্মাননা প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে ডাঃ নূর হিশাম স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের (এমওএইচ) পক্ষ থেকে এক্সেলেন্ট হেলথ কেয়ার সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছেন। ডাঃ নূর হিশাম পুরষ্কার প্রাপ্তিতে তাঁর বক্তৃতায় বলছিলেন, স্বাস্থ্য বিভাগ জনগণ ও দেশের সেরা স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রত্যেকের পাশাপাশি বিভিন্ন সংস্থার উত্সর্গ, প্রতিশ্রুতি, ত্যাগ ও প্রতিরোধের প্রতিবিম্বিত হয়েছে।
“আমরা জনপ্রিয়তার জন্য নই, সঙ্কট থেকে জাতিকে বাঁচানো। তিনি সকল ফ্রন্টলাইনারের পক্ষ থেকে এই স্বীকৃতির জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য মহাপরিচালক পেলেন ব্র্যান্ডলরেট সম্মাননা পুরষ্কার

এদিকে, অ্যালথফ বলেছেন, ডাঃ নূর হিশামের নেতৃত্বে এমওএইচ দলের কঠোর পরিশ্রমের কারণে মালয়েশিয়া সফলভাবে কোভিড -১৯ বক্ররেখা সমতল করতে পেরেছে। “আপনি (ডাঃ নূর হিশাম) এবং আপনার দল এটি তৈরি করেছে। আপনি বক্ররেখাকে সমতল করার জন্য একটি বিজয়ী রেসিপিটি খুঁজে পেয়েছেন এবং করোনা সংক্রমনরোধে সেরা অনুশীলন দেখিয়েছেন। ব্র্যান্ডলরেট সম্মাননা পাওয়ার আগে ডা. নূর হিশাম আব্দুল্লাহকে বিশেষ সম্মানে ভূষিত করেছে ইউনিভার্সিটি কেবাংসান মালয়েশিয়া (ইউকেএম)। গত ৩ জুলাই ‘ইউকেএময়ে’র অনুষদের ‘সংঞ্জান কেনকানা’ পুরস্কার ঘোষণা করে ‘ইউকেএময়ে’র অনুষদ বিভাগ ।

এদিকে নোভেল করোনা সংক্রমণরোধে মালয়েশিয়াজুড়ে ডা. নূর হিশাম আব্দুল্লাহর কৌশল প্রয়োগে জাতীয় নায়কের খেতাবে ভূষিত করেছেন দেশের জনগণ। পাশাপাশি কোভিড-১৯ পরিস্থিতি সফলভাবে মোকাবিলা ও সুকৌশলে পরিচালনা করায় চীনের একটি টিভি স্টেশন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় চিকিৎসকদের মধ্যে মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য মহাপরিচালক ডা. নূর হিশাম আব্দুল্লাহকে অন্যতম হিসেবে চিহ্নিত করেছিল।

মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য মহাপরিচালক পেলেন ব্র্যান্ডলরেট সম্মাননা পুরষ্কার

চীনা গ্লোবাল টিভি নেটওয়ার্কের (সিজিটিএন) এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিস্তার ঠেকানোর লড়াইয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্টনি ফৌসি এবং নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক অ্যাশলে ব্লুমফিল্ড-এর পাশাপাশি ডা. হিশাম শীর্ষস্থানীয় চিকিৎসকের একজন। মহামারি চলাকালীন তাদের দেশবাসীর জন্য প্রদান করা তথ্যগুলো শান্ত, স্পষ্ট এবং বিশ্বাসযোগ্য হওয়ার কারণে তিনজন ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছেন। তাদের কেউই মন্ত্রিপরিষদ মন্ত্রী নন তবে তিনজনই তাদের দেশের কোভিড-১৯ এর প্রতিক্রিয়া প্রকাশে নিজ দেশের মুখপাত্র হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানায় সিজিটিএন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, প্রিন্ট এবং টিভিতে হার্টথ্রবস, রকস্টার এবং জাতীয় নায়ক বলা হচ্ছে তাকে। একটি অভূতপূর্ব বিশ্বব্যাপী মহামারির মধ্যে সরকার প্রতিক্রিয়া দেখাতে মন্থর হয়ে পড়ছিল, পাশাপাশি বিভিন্ন সময় বিভ্রান্তিমূলক পদক্ষেপ এবং পরস্পরবিরোধী বার্তা প্রেরণ করায় ডা. ফাউসি, ডা. ব্লুমফিল্ড এবং ডা. হিশাম বিশ্বস্ত এবং আশ্বাসের উৎস হয়ে উঠেছেন।
কোভিড-১৯ মহামারি পরিচালনার জন্য চীনের একটি টিভি স্টেশন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় চিকিৎসকদের মধ্যে স্বাস্থ্য মহাপরিচালক দাতুক ডা. নূর হিশাম আবদুল্লাহকে বিশেষভাবে উল্লেখ করেছেন। ডা. হিশাম (৫৭) ২০১৩ সাল থেকে হেলথ ডিরেক্টর-জেনারেল হিসেবে রয়েছেন।

ডা. হিশাম, ইউনিভার্সিটি কেবাংসান মালয়েশিয় থেকে সার্জারি ও মেডিকেল ডিগ্রি অর্জন করেছেন, ১৯৮৮ সালের আগস্টে ফিরে তিনি মেডিকেল অফিসার হিসাবে সিভিল সার্ভিসে যোগদান করেছিলেন। তিনি এন্ডোক্রাইন শল্য চিকিৎসা করার জন্য দক্ষ এবং অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেড এবং সিডনির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। তিনি এন্ডোক্রাইন সার্জারি সম্পর্কিত বহু স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক জার্নাল এবং পাঠ্যপুস্তক অধ্যায়গুলিতে গবেষণা ধর্মী লেখা প্রকাশ করেছেন। ডা. হিশামের শুভাকাঙ্খীরা তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে ও প্রশংসা করে বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, ‘মালয়েশিয়া তাকে পেয়ে ভাগ্যবান’।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews