1. monir212@gmail.com : admin :
  2. user@probashbarta.com : helal Khan Probashbarta : Helal Khan
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩০ পূর্বাহ্ন

জাপানে যেকোনো দিন লকডাউন: প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৭ এপ্রিল, ২০২০
Print Friendly, PDF & Email

 

ফখরুল ইসলাম, জাপান থাকে: করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকে অন্যান্য দেশের তুলনায় কিছুটা ভালো অবস্থানে ছিল জাপান। তবে গত কয়েকদিন ধরে অবস্থার পরিবর্তন শুরু হয়। দেশটিতে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাচ্ছে, বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। এ অবস্থায় দেশ ও জাতির নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে লক ডাউনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

সোমবার ( ৬ এপ্রিল ) এক জরুরি বৈঠকের পর এ সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি। সরকার বিশেষজ্ঞদের একটি প্যানেলে পুনরায় একটি বৈঠকে বসবেন, এরপরই জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হবে বলে জানা গেছে। তবে জাপানের কয়েকজন স্থানীয় রাজনীতিবিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, যে কোনো সময় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করবেন আবে।

গতকাল রোববার স্বাস্থ্যমন্ত্রী ক্যাটসুনোবু কাটো এবং অর্থনৈতিক ও রাজস্ব নীতিমন্ত্রী ইয়াসুতোশি নিশিমুরাসহ জাপানের রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে বৈঠক করেন। পরে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এনএইচকের একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেন ইয়াসুতোশি নিশিমুরা। সেখানে তিনি বলেন, ‘প্রয়োজনে আমরা বিনা দ্বিধায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নেব। আমরা একটি সমাধানের পথ খুঁজছি।’

একই অনুষ্ঠানে টোকিও গভর্নর ইউরিকো কৌইক কেন্দ্রীয় সরকারকে জরুরি অবস্থা জারি করতে জোর দাবি জানান।

যদিও জাপানের সংবিধানে নাগরিকদের স্বাধীনতায় উদ্বেগের কারণে কাউকে ঘরে থাকার দাবিতে সরকারকে অনুমতি দেয় না। তবে উদ্ভূত পরিস্থিতে কী কী করা উচিৎ, তা নির্ধারণ করার জন্য বিশেষজ্ঞদের ওই প্যানেলকে তাদের মতামত দেওয়ার জন্য বলেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী।

জাপানে বাইরে চলাচল সীমিত করেছে বাসিন্দারা

আগে থেকেই জরুরি অবস্থানে জাপানি ও প্রবাসীরা

জরুরি অবস্থার ঘোষণার আগেই জাপানি নাগরিকরা নিজেদের গুটিয়ে নিয়েছেন রাজপথ থেকে। তাদের কে  কাজে কম দেখা  যায় । বিভিন্ন কার্যালয়ের প্রধানরা তাদের কর্মীদের কাজে যেতে বারণ করেছেন। জাপানের রাস্তায় কাউকে দেখা যাচ্ছে না। রাজধানী টোকিওতে ব্যস্ত রাস্তাগুলোতে মানুষ খুঁজে পাওয়াু দুষ্কর। রাতের জাপানকে দেখতে এখন অদ্ভুতুড়ে মনে হয়। বিভিন্ন দেশের প্রবাসীরাও নিজেদের ঘরে  থাকার চেস্ষ্টা করছে । মানুষ শুন্য হয়ে যাচ্ছে ট্রেন স্টেশনগুলো। বড় বড় শপিংমলগুলোও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।এক সাথে ১০ জনকে জড়ো হয়ে না থাকার নির্দেশ দিয়েছে সরকার |

জানা গেছে, টোকিওতে এই গ্রীষ্মে অলিম্পিক গেমস আয়োজনের কথা ছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতে দেশটিতে সব ধরনের আয়োজন বন্ধ করে দেওয়া হবে।

জাপানে করোনাভাইরাস : মৃত- ৮৫ ,আক্রান্ত- ৩ হাজার ৬৫৪ জন,  সুস্থ- ৫৭৫।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews