Print Friendly, PDF & Email

 

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া: মালয়েশিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্পে ১৩৮৪ বাংলাদেশি দেশে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছেন বলে ইমিগ্রেশন সূত্রে জানা গেছে।

দেশটির অভিবাসন বিভাগসহ বিভিন্ন বাহিনীর অভিযানে গ্রেফতারের পর সাজা শেষে দেশে ফেরার অপেক্ষায় প্রহর গুণছেন তারা।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ হাইকমিশনের সংশ্লিষ্টরা বলছেন, যারা ডিটেনশন ক্যাম্পে আটক ‘যাদের পাসপোর্ট নেই তাদের নাগরিকত্ব নিশ্চিত হবার জন্য দূতাবাসের পক্ষ থেকে বিভিন্ন ক্যাম্পে গিয়ে সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়। এছাড়াও কিভাবে বাংলাদেশ থেকে এসেছে, কেন শাস্তি পেয়েছে এসব বিষয়ে খোজ নেওয়া হয়। যাদের প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র তথা পাসপোর্ট নেই তাদের হাইকমিশন থেকে টিপি এবং অসামর্থ্যদের জন্য কমিউনিটির জনহিতৈশীদের সহায়তায় ফ্লাইট টিকিটের ব্যবস্থা করে দ্রুত দেশে প্রেরণ করা হয়।

মালয়েশিযার ইমিগ্রেশনের মহাপরিচালক দাতু খাইরুল দাজাইমি আবু দাউদ সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, মালয়েশিয়ার ১৪টি ডিটেনশন সেন্টারের মধ্যে ১২টি সেন্টারে ৩৮ জন নারিসহ মোট ১৩৮৪ বাংলাদেশি রয়েছেন। এর মধ্যে একজন শিশু ও রয়েছে। এ ছাড়া ডিটেনশন সেন্টারে এসব বাংলাদেশিসহ আটক বিভিন্ন দেশের ৮ হাজার ৭শত ৭৪ জন।

ইমিগ্রেশন মহা পরিচালক সাংবাদিকদের বলেন, চলমান ব্যাক ফর গুড’ এর আওতায় বিভিন্ন দেশের অভিবাসীরা দেশে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছে। ইতিমধ্যেই ৭৫ হাজার ৩শত ৪৪ জন বিভিন্ন দেশের অভিবাসীরা ইমিগ্রেশন অফিসে নিজ নিজ দেশে ফিরার আবেদন করেছেন । এর মধ্য থেকে ৫৬ হাজার ২শত ৮৪ জন ইতিমধ্যে মালয়েশিয়া ত্যাগ করেছেন।

bdnewspaper24