Print Friendly, PDF & Email

 

স্টাফ রিপোর্টার: বন্ধ শ্রমবাজার চালুর বিষয়ে ৬ নভেম্বর মালয়েশিয়ায় দু’দেশের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী এম কুলাসেগারানের ও বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশি কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদের মন্ত্রী পর্যায়ের এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার (৪ নভেম্বর) দিবাগত রাত ১২টা ৫৫মিনিটে মালয়েশিয়ার উদ্দেশে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করবেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ এমপি ও তার সফরসঙ্গীরা।

৬ নভেম্বর দেশটির প্রশাসনিক কেন্দ্রস্থল পুত্রাজায়ায় মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলসেগারানের সাথে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হওয়ার কথা। রাজধানী কুুয়ালালামপুর থেকে প্রতিনিধিদলের সাথে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুহ. শহীদুল ইসলাম এবং কাউন্সেলর (শ্রম) মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম যোগ দেবেন।

মালয়েশিয়া সফরে প্রতিনিধি দলে মন্ত্রী ইমরান ইমরান আহমদ এমপির সাথে থাকছেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, অতিরিক্ত সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, যুগ্ম-সচিব ফজলুল করিম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মো: আজিজুর রহমানএবং বিএমইটির পরিচালক মো: নুরুল ইসলাম।

শ্রমবাজার চালুর বিষয়ে কর্মী ও দেশের স্বার্থ রক্ষা এবং মালয়েশিয়ার ইচ্ছাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হবে বলে আগেই জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ।

শ্রমবাজার চালুর ক্ষেত্রে এবার মালয়েশিয়া সরকারের পক্ষ থেকে বেশ কয়েকটি বিষয় সামনে আসতে পারে। এরমধ্যে কর্মীদের কম অভিবাসন ব্যয়ে পাঠানো, কোম্পানী পরিবর্তন না করা, মেয়াদ শেষে দেশে ফিরে আসা, যোগ্য সকল রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে কর্মী পাঠানো, মেডিকেলসহ অন্য বিষয়গুলো মালয়েশিয়ার পদ্ধতিতে পরিচালনা করা।

উল্লেখ্য গেলো বছরের ১লা সেপ্টেম্বর বন্ধ হয়ে যায় মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর অনলাইন পদ্ধতি এসপিপিএ।  এরপর সে সময়ের মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বি.এসসি ২৫ সেপ্টেম্বর মালয়েশিয়া গিয়ে বৈঠক করেও, শ্রমবাজারটি চালু করতে পারেননি। এরপর ৩১ অক্টোবর ঢাকায় দুদেশের যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেই বৈঠকে নতুন করে কর্মী নেয়ার কিছু পদ্ধতি ঠিক হয়। চলতি বছরের ১৪ মে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্হান মন্ত্রী ( তখন প্রতিমন্ত্রী) ইমরান আহমদ মালয়েশিয়া সফরে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তানশ্রি মুহিউদ্দিন ইয়াসিন ও মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসেগারানের সাথে বৈঠক করেন। সেই বৈঠকের অগ্রগতি হিসেবে ২৯ ও ৩০ মে মালয়েশিয়ায় দুদেশের যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের আরেকটি বৈঠক হয়। কিন্তু সেখান থেকেও শ্রমবাজার চালুর বিষয়ে কোন রুপরেখা পাওয়া যায়নি।

৭ জুলাই মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সাইফুউদ্দিন বিন আব্দুল্লাহর বাংলাদেশ সফরের বৈঠক শেষে পরারাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন জানিয়েছিলেন, আগস্টেই খুলছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার।

bdnewspaper24