Print Friendly, PDF & Email

 

প্রবাস বার্তা, সৌদি আরব: সম্প্রতি সৌদি আরব পর্যটন খাতকে সমৃদ্ধ করতে বিদেশী পর্যটকদের জন্য নতুন ভিসা উন্মুক্ত করেছে । তবে বিদেশি পর্যটকদের জন্য ১৯টি বিধি-নিষেধ আরোপ করে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

গত শুক্রবার সৌদি আরব বিশ্বের ৪৯টি দেশের জন্য ভিসার নতুন নিয়ম চালু ঘোষণা দিয়েছে। এতদিন সৌদি আরবে ভিসা দেওয়া হতো প্রধানত হজ্বযাত্রী, ব্যবসায়ী এবং বিদেশী শ্রমিকদের জন্য।

সরকারি গনমাধ্যমের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে- জনশৃঙ্খলা সম্পর্কে সৌদি আরবের দর্শনার্থী ও পর্যটকদের মধ্যে সচেতনতা তৈরির উদ্দেশ্যে এসব নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

এসব বিধি-নিষেধের মধ্যে পর্যটকদের পোশাক পরিধানের ক্ষেত্রে শিথিলতার কথা বলা হলেও জনসমক্ষে অশালীন ও আকর্ষণীয় পোশাক পরিধানের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

নতুন ভিসার ওয়েবসাইটে তালিকাভুক্ত নিষেধাজ্ঞার মধ্যে মূত্রত্যাগ, থুথু ফেলা, দড়িলাফ, বিনা অনুমতিতে মানুষের ছবি তোলা এবং সালাতের সময় সঙ্গীত বাজানো অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। অপরাধ ভেদে জরিমানা ধরা হয়েছে ৫০ রিয়াল (১৩ ডলার) থেকে ৬ হাজার রিয়াল (১৬০০ ডলার) পর্যন্ত।

অমুসলিমরা নতুন ভিসার আওতায় পবিত্র মক্কা ও মদিনার নগরীতে যেতে পারবেন না। তাছাড়া মদ্যপানের উপর নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে। তবে অবিবাহিত বিদেশী পুরুষ ও নারী পর্যটক হোটেলে একই রুমে অবস্থান করতে পারবে কিনা সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলা হয়নি।

নতুননিয়ম অনুযায়ী বিদেশি নারী পর্যটকদের পুরো শরীর ঢাকা আবায়া পড়তে হবে না, যা সৌদি নারীরা পড়েন। তবে অবশ্যই সংযত-শালীন পোশাক পড়তে হবে। সৌদি আরব আশা করছে যে, সে দেশে পর্যটন খাতে বিদেশি বিনিয়োগ হবে এবং ২০৩০ সাল নাগাদ পর্যটন ৩% থেকে বেড়ে ১০ শতাংশে পৌঁছাবে। [রয়টার্স]

bdnewspaper24