1. monir212@gmail.com : admin :
  2. support@wordpress.org : Support :
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ইতালিতে সিজনাল ও স্পন্সর ভিসা: বাংলাদেশিদের যা জানা প্রয়োজন মার্কিন ফেডারেল কোর্টের বিচারপতি হলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নুসরাত বাংলাদেশ থেকে প্রক্রিয়াজাত খাবার-পোশাক-আসবাব নিতে আগ্রহী মেক্সিকো মালদ্বীপে লাফিয়ে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ গোলাপগঞ্জে ইউরোপ-বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদককে সংবর্ধনা আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য জাহাঙ্গীর ফরাজী মালয়েশিয়া শ্রমবাজার: রিক্রুটিং এজেন্সি ইস্যুতে নতুন করে চিঠি চালাচালি জেদ্দায় কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ঢাকা-শারজাহ রুটে বিমানের ফ্লাইট ২৫ জানুয়ারি থেকে মালদ্বীপে ফের বাড়ছে করোনার সংক্রমণ

আমিরাত শাখা জনতা ব্যাংকের ঋণ খেলাপি ২১ শতাংশ: তালিকাভুক্ত ১৬১ প্রবাসী

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
Print Friendly, PDF & Email

 

প্রবাস বার্তা, বিশেষ প্রতিবেদন: সংযুক্ত আরব আমিরাতে রাষ্ট্রায়ত্ত জনতা ব্যাংকের ২১ শতাংশ ঋণখেলাপি রয়েছে বলে জানিয়েছেন, অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ আসাদুল ইসলাম।

বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় রাতে জনতা ব্যাংক আবুধাবি শাখা কার্যালয়ের প্রবাসীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় আমিরাতে সফররত অর্থ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব এ তথ্য জানান।

সচিব বলেন, ‘দেশটিতে চারটি শাখায় এই ঋণ খেলাপিদের তালিকায় নাম রয়েছে ১৬১ জন প্রবাসীর। এই ঋণখেলাপির প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করে ঋণগ্রহীতারা দ্রুত সময়ের মধ্যে নিজেদের ঋণ পরিশোধ না করলে তাদের নাম ব্যাংকের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে বলে সতর্ক করে দিয়ে ঋণ খেলাপীর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি’।

আমিরাতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা মোতাবেক ২.৭ শতাংশ ঋণখেলাপি থাকার বিধান থাকলেও বর্তমানে জনতা ব্যাংকে ২১ শতাংশ ঋণ খেলাপি রয়েছে। জনতা ব্যাংকের চারটি শাখায় ১৬১ জন প্রবাসীর কাছে এই ঋণ খেলাপি রয়েছে বলে জানান তিনি।

এ সময় তিনি বলেন ঋণ পরিশোধ না করে কেউ পালিয়ে থাকতে পারবে না। দেশে গেলে সেখানেও তাদের আইনের মুখোমুখি হতে হবে। তাই ব্যাংকের দ্রুত ঋণ পরিশোধ করতে খেলাপিদের প্রতি আহ্বানও জানান তিনি।

সচিব আসাদুল ইসলাম আরো জানান- প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সের উপর সরকার ঘোষিত ২ শতাংশ প্রণোদনা চলতি বছরের পহেলা জুলাই থেকে কার্যকর বলে গণ্য হবে। এ খাতের জন্য ২০১৯-২০ বাজেটে ৩ হাজার কোটি টাকার প্রভিশন রাখা হয়েছে অক্টোবর-নভেম্বর থেকে। গ্রাহক পর্যায়ে তা দেওয়া শুরু হলে বেনিফিশিয়ারি বা ভোক্তার অ্যাকাউন্টে জুলাই থেকে পাঠানো টাকার বিপরীতে ইনসেন্টিভ হিসেবে জমা হবে।

সভায় জনতা ব্যাংক আবুধাবী শাখার প্রধান নির্বাহী ও মহা ব্যবস্থাপক আবুল হাসান আমিরাতের বিভিন্ন স্থানে বসানো সাটি এটিএম, কল সেন্টার, ব্যাংকিং সফটওয়্যার ও মোবাইল ব্যাংকিং সেবার কথা তুলে ধরেন। তিনি আরো জানান কিছুদিনের মধ্যে প্রবাসীদের জন্য জীবন বীমা সেবা চালু করা হবে।

আলোচনায় আরো অংশ নেন- আশীষ বড়ুয়া, মইন উদ্দিন, মোহাম্মদ জোবায়ের, মাহবুব খন্দকার ও আরিফুর রহমান খান। সিআইপি ফখরুল ইসলাম খান, বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ আলম, সহ-সভাপতি রফিকুল ও সাংবাদিক জাহাঙ্গীর কবির বাপ্পি সহ বিপুলসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী এসময় উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য ইউবিকোর একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বাংলাদেশের অর্থ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আসাদুল ইসলাম গত মঙ্গলবার আরব আমিরাতে আসেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews