কনফারেন্সে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব এবং বক্তব্য উপস্থাপন করছেন তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী।
Print Friendly, PDF & Email
ফখরুল ইসলাম, জাপান থেকে: সরকার ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের সবার জন্য সাশ্রয়ী, নির্ভরযোগ্য এবং আধুনিক জ্বালানি সেবা অধিকার নিশ্চিত করবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী।
বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) জাপানের টোকিওতে স্থানীয় সময় সকালে ‘দ্যা এল.এন.জি প্রডিউসার এন্ড কনজুমার কনফারেন্স-২০১৯’ আয়োজিত এক কনফারেন্সে এ একথা বলেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা।
এল.এন.জি  বিষয়ক অন্যতম বৃহৎ এই কনফারেন্সে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব এবং বক্তব্য উপস্থাপন করেন তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী। এসময় তিনি বাংলাদেশের জ্বালানী নীতি এবং পরিকল্পনা নিয়ে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত পদক্ষেপসমূহ নিয়ে আলোচনা করেন। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্জিত বিভিন্ন খাতে বাংলাদেশের উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরেন।
২০১২ সাল থেকে নিয়মিত অনুষ্ঠিত হয়ে আসা কনফারেন্সে এ বছরের প্রতিপাদ্য ছিলো “কো-অপারেশন বিটুইন প্রডিউসার এন্ড কনজুমার টুওয়ারড নেক্সট ফিফটি ইয়ারস”। কনফারেন্সের মূল লক্ষ্য ছিলো আলোচনার মাধ্যমে এল.এন.জি  উৎপাদনকারী, ভোক্তা এবং  অন্যান্য সংশ্লিষ্ট  সকল পক্ষের মধ্যে জ্ঞান, অভিজ্ঞতা ও মতের বিনিময় এবং এল.এন.জি’র চাহিদা ও বাজার তৈরী ও প্রসার ঘটানো।
এছাড়া কনফারেন্সে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট’র সপ্তম অভীষ্ট- সাশ্রয়ী ও দূষণমুক্ত জ্বালানি নিশ্চিতে এল.এন.জি’র ভূমিকা ও গুরুত্ব নিয়েও আলোচনা হয়।
কনফারেন্সে উপস্থিত জাপান, কাতার, অস্ট্রেলিয়া, ব্রুনেই, ইন্দোনেশিয়া, মালেশিয়া, ওমান, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনামসহ বিভিন্ন দেশের মন্ত্রী ও উচ্চপদস্থ ব্যক্তিগণ।
কনফারেন্সে জাপান, কাতার, অস্ট্রেলিয়া, ব্রুনেই, ইন্দোনেশিয়া, মালেশিয়া, ওমান, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনামসহ  বিভিন্ন দেশের মন্ত্রী ও উচ্চপদস্থ ব্যক্তিগণ বক্তব্য প্রদান করেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।
পরে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী জাপানের অর্থনীতি, বাণিজ্য ও শিল্প বিষয়ক মন্ত্রী জনাব হিরোশিগে সেকো’র সাথে দ্বিপাক্ষিক সভা করেন। এসময় উপদেষ্টা সবময় বাংলাদেশের পাশে থাকার জন্য জাপান সরকারকে ধন্যবাদ জানান এবং প্রচুর সম্ভাবনাময় বাংলাদেশের তেল-গ্যাস ও প্রাকৃতিক খনিজ সম্পদ উত্তোলনে জাপানের কারিগরি সহায়তা কামনা করেন।
এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হাইড্রোজেন কনফারেন্সে যোগদান করেন এবং জাপান ইন্টারন্যাশনাল কোপারেশন এজেন্সি (জাইকা)’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জুনিচি ইয়ামাদা এবং জাপানের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সাথে বিভিন্ন স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করেন।
bdnewspaper24