1. monir212@gmail.com : admin :
  2. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  3. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিমানবন্দরে আজও হচ্ছে না করোনা পরীক্ষা, বাতিল হলো ফ্লাইট পতুর্গালে সিটি নির্বাচনে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে কাউন্সিলর পদে বিজয়ী শাহ আলম “আশা ছিল পিসিআর ল্যাব চালু করে প্রবাসীদের নিয়েই আমিরাত যাবো” সাত দিনের আমিরাত সফরে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ সাত দিনের সফরে দুবাই যাচ্ছেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ২৩ দিনে ১৩৯ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হোটেল কোয়ারেন্টিনের টাকা পাচ্ছেন সৌদি প্রবাসীরা বিমানবন্দরে আমিরাতগামীদের করোনা পরীক্ষা শুরু ২৮ সেপ্টেম্বর দুবাই যেতে করোনা ভাইরাসের যে টিকা নিতে হবে পিসিআর ল্যাব প্রস্তুত বিমানবন্দরে, ফ্লাইট চালু কবে ?

মালয়েশিয়ায় আটক বিদেশিদের খাবারের খরচ প্রতিমাসে ৩.৫ মিলিয়ন রিংগিত

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : সোমবার, ২৪ জুন, ২০১৯
Print Friendly, PDF & Email

 

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া: মালয়েশিয়ায় আটক বিদেশিদের খাবারের খরচ প্রতিমাসে ৩.৫ মিলিয়ন রিংগিত। সরকার বিদেশি বন্দীদের পিছনে  প্রতি  মাসে  প্রায় মালয় রিংগিত ৩.৫ মিলিয়ন খাবারের জন্য ব্যয় করছে।

সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক ঈদপুণর্মিলনী অনুষ্ঠানে মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল দাজাইমি দাউদ সাংবাদিকদের এ কথা জানান। তিনি বলেন, আটককৃতদের দ্রুত নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠালে এ খরচ কমে আসবে বলেও জানান তিনি।

মালয়েশিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্পে বাংলাদেশিসহ ৯,৬৫৪ জন বন্দী রয়েছেন। এ বন্দীদের ভিবিন্ন মেয়াদে সাজা শেষে দেশে ফেরত যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন। জানুয়ারি থেকে জুনের ১৮ পর্যন্ত বাংলাদেশীসহ এক লাখ ৩ হাজার ২২৪ জন  অবৈধ অভিবাসীর নথিপত্র চেক করা হয়। এর মধ্যে ৮ হাজার ২৭৭ টি অভিযানে আটক করা ২৮ হাজার বিদেশি শ্রমিকদের। ইতোমধ্যে বহু বিদেশি অভিবাসী  যার যার দেশে ফেরত  গেলেও গুরুতর অপরাধে ৯,৬৫৪ জনের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করে অভিবাসন বিভাগ।

দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ১৪ টি ইমিগ্রেশন ডিপোতে আটক এসব অবৈধ অভিবাসীদের এক থেকে দুই মাসের জন্য সেখানে রাখা হয়। সেখান থেকে তাদের নিজ নিজ দেশে ফিরে যেতে তাদের কূটনৈতিক মিশন (দূতাবাস) দ্বারা পরিচয় ও আনুসাঙ্গিক কার্যাদী সম্পন্ন শেষে দেশে ফেরত পাঠানো হয় ।

মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল দাজাইমি দাউদ সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে  বলেন, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে  ১৮ জুন পর্যন্ত  ১৪টি  ডিপোতে ৯,৬৫৪ জন আটক রয়েছে। আটককৃতদের মধ্যে ৭,৬৫০ পুরুষ,  এবং নারি ও শিশু রয়েছেন ১,৬৬৪ জন। এর মধ্যে ইন্দোনেশিয়ার ৩,৭৬৭, মায়ানমার ২,১০৫, বাংলাদেশ ১,৫২৪, ভারত ১,৫২৫, ভিয়েতনাম ২৯৪, পাকিস্তান ২৬৩, থাইল্যান্ড ২২৬, ফিলিপাইন ২২২, নেপাল ১৯৩, নাইজেরিয়া ১৫০ এবং বাকিরা বিভিন্ন দেশের ৩১৫ জন।

তিনি আরো বলেন, বুকিত জলিল, কুয়ালালামপুর,কেলআইএ,সেপাং,লেংগিং,নেগরি সেমবিলান,জুরু ও পুলাউ পেনাং ডিপো থেকে  আটককৃতদের মধ্যে কিছু অভিবাসিদের আমরা দ্রুত  যার যার দেশে ফেরত পাঠানো হবে।

ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন শ্রম কাউন্সিলর

এদিকে মালয়েশিয়ার লেংগিং  ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর মো: জহিরুল ইসলাম।

২১ জুন শুক্রবার ক্যাম্প পরিদর্শনের আগে সকাল সাড়ে ১০ টায় নেগরি সেম্বিলান ইমিগ্রেশন বিভাগের অ্যাসিস্টেন্ট ডাইরেক্টর ও লেংগিং ক্যাম্পের কমান্ডার জুরাইন বিন মো. ইদ্রিছের সঙ্গে সাক্ষাত করেন ।
সাক্ষাত শেষে তিনি বাংলাদেশিদের সঙ্গে কথা বলেন এবং বন্দিদের খোজঁ খবর নেন। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন, দূতাবাসের শ্রম শাখার কল্যাণ সহকারি জাহাঙ্গীর আলম ও লোকমান আহমদ।

এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন নেগরি সেম্বিলান ইমিগ্রেশন বিভাগ ও লেংগিং ক্যাম্পের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা।
ক্যাম্পে থাকা বাংলাদেশের নাগরিকদের দেশে পাঠানো এবং অহেতুক বাংলাদেশি কর্মীদের হয়রানি না করার আশ্বাস দেন কামান্ডার জুরাইন বিন মো. ইদ্রিছ।
এক প্রশ্নের জবাবে শ্রম কাউন্সিলর বলেন, প্রত্যেকটি ক্যাম্পে কতজন বাংলাদেশি আটক রয়েছে তাদের তালিকা দ্রুত মিশনে পাঠাতে বলা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘এ ক্যাম্প থেকে যাদের সাজার মেয়াদ শেষ হয়েছে তাদের দেশে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।
মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন সূত্র জানায়, বিভিন্ন কারাগার ও ক্যাম্পে যারা আটক আছেন, তাদের বেশিরভাগই অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় প্রবেশ কিংবা অবৈধভাবে থাকার কারণে গ্রেফতার হয়েছেন। এদের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ার অভিবাসন আইন, ১৯৫৯-এর ধারা ৬(১) সি/১৫ (১) সি এবং পাসপোর্ট আইন, ১৯৬৬-এর ১২(১) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। দেশটির সিমুনিয়া, লেঙ্গিং, জুরুত, তানাহ মেরায়, মাচাম্বু, পেকা নানাস, আজিল, কেএলআইএ সেপাং ডিপো, ব্লান্তিক, বুকিত জলিল ও পুত্রজায়া বাংলাদেশি রয়েছেন যাদের সাজা শেষ হচ্ছে, তাদের দেশে পাঠানো হচ্ছে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, ভাগ্য ফেরানোর নেশায়, দালালদের প্রলোভনে পরিবারে স্বচ্ছলতার স্বপ্ন নিয়ে বাংলাদেশের অনেক যুবক লুফে নেন স্বল্প খরচে মালয়েশিয়া যাওয়ার সুযোগ। তবে মালয়েশিয়া যাত্রা শুরুর আগে তারা উপলব্ধি করতে পারেননি, কী আছে সামনে। ভাগ্য বদলের নেশায় তারা বিভোর তখন।

সোনার হরিণ হাতে পেতে মালয়েশিয়া যাত্রা শুরুর পরপরই খুলতে থাকে তাদের চোখ। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে। দুর্গম সাগরপথে ক্ষুধা, তৃষ্ণা, অবর্ণনীয় অত্যাচারে হঠাৎ চোখ খুলে যাওয়া এ যুবকদের সামনে তখন না আছে সামনে যাওয়ার পথ, না আছে পেছনে ফেরার পথ।

এসব বন্দী বাংলাদেশিরা দেশের অর্থনৈতিক চাকাকে সচল করতে এবং পরিবারের সদস্যদের মুখে হাসি ফোটাতে ভিটেমাটি, সহায়-সম্বল বিক্রি করে স্বপ্নের দেশ মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমিয়েছিলেন। ভাগ্যের নির্মম পরিহাস পরিবারে হাসি ফোটানো তো দূরে থাক, পুলিশের হাতে ধরা পড়ে বন্দিশিবিরে অসহায়ত্বের গ্লানি টানছেন তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অবৈধপথে বিদেশে পাড়ি দিতে গিয়ে অহরহ প্রাণহানি ঘটছে, কেউ ধরা পড়ছেন নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে। কেউবা প্রতারকদের হাতে জিম্মি হচ্ছেন। সহায়-সম্বল বিক্রি করে টাকা দেয়ার পর মুক্তি মিলছে কারও।

হাইকমিশনের শ্রম শাখার প্রথম সচিব হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল জানান, বন্দিশিবিরে যারা আটক রয়েছেন, তাদেরকে দ্রুত দেশে পাঠানোর সব রকম ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এর মধ্যে দূতাবাসের শ্রম শাখার সচিবরা প্রত্যেকটি বন্দিশিবির পরিদর্শন করে বাংলাদেশিদের নাগরিকত্ব যাচাই এবং সনাক্ত করে পর্যায়ক্রমে তাদের দ্রুত দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করছেন।

তিনি আরও বলেন, ‘অনেক সময় দেখা যায়, একটি ক্যাম্প থেকে তালিকা দিতে এক থেকে দুই সপ্তাহ বিলম্ব হওয়ায় দূতাবাস থেকে ট্রাভেল পাস ইস্যু করতে সমস্যা হয়। আবার ক্যাম্প থেকে তালিকা পাঠানো হলেও ব্যক্তির ফরম থাকে না। পরে ক্যাম্পে যোগাযোগ করে তা নিয়ে আসতে হয়। তারপরও দ্রুত বন্দিদের দেশে পাঠাতে আমরা প্রাণপণ চেষ্টা করছি। যাদের কেউ নেই অথবা টিকিটের ব্যবস্থা হচ্ছে না, তাদের দূতাবাসের পাশাপাশি জনহিতৈষী কাজে নিয়োজিতদের সহযোগিতায় বিমান টিকিট দিয়ে তাদের দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews