1. monir212@gmail.com : admin :
  2. user@probashbarta.com : helal Khan Probashbarta : Helal Khan
  3. merajhgazi@gmail.com : News Desk : Meraj Hossen Gazi
  4. desk@probashbarta.com : News Desk : News Desk
শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১১:০১ পূর্বাহ্ন

দেশে ফিরলো তিউ‌নি‌শিয়া সাগরে ভাসা সেই ৬৪ বাংলাদেশির ১৭ জন

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ২১ জুন, ২০১৯
Print Friendly, PDF & Email

 

স্টাফ রিপোর্টার : তিন সপ্তাহ ধরে তিউনিসিয়ার সাগরে ভে‌সে থাকা ৬৪ বাংলা‌দেশি১৭ জন দেশে ফিরেছেন।

আজ (শুক্রবার) বিকেল ৫.১৫ মিনিটে কাতার এয়ারওয়েজের QR-634 বিমান যোগে তিউনেশিয়া থেকে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছান তারা। এরপর তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ তাদের হেফাজতে নেয়।

ভূমধ্যসাগর দি‌য়ে এভা‌বে বি‌দে‌শে যাওয়ার চেষ্টা বাংলা‌দেশের ভাবমু‌র্তি‌কে সংক‌টে ফেল‌ছে জা‌নি‌য়ে
বেসরকা‌রি সংস্থা ব্র্যা‌কের‌ অ‌ভিবাসন কর্মসূ‌চির প্রধান শ‌রিফুল হাসান। তি‌নি ব‌লেন, “আমরা খোঁজ নি‌য়ে জে‌নে‌ছি এই ১৭ জনের ম‌ধ্যে আটজনই মাদারিপু‌রের। বা‌কি নয়জ‌নের মধ্যে চারজন চারজন ব্রাহ্মণবা‌ড়িয়ার। বা‌কি পাঁচজ‌নের বা‌ড়ি শরীয়তপুর, নোয়াখালী, চাঁদপু‌র, মৌলভীবাজার ও সুনামগঞ্জ জেলার। এই ধর‌নের মানবপাচার যে কোন মূ‌ল্যে বন্ধ কর‌তে হ‌বে।”

‌রেড‌ক্রি‌সেন্ট সূত্র ধ‌রে অান্তর্জা‌তিক বি‌ভিন্ন গণমাধ্যম বল‌ছে, প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে তিউনিসিয়ার সাগরে এক‌টি নৌকায় ভাস‌ছি‌লেন ৭৫ জন শরণার্থী, যা‌দের ম‌ধ্যে ৬৪ জনই বাংলা‌দে‌শি। নৌকাটি তিউনিয়ার উপকূলের কাছে পৌঁছালেও কর্তৃপক্ষ তীরে নামার অনুমতি দেয়নি।

তিউনিসিয়া কর্তৃপক্ষ জানায়, তাদের শরণার্থী কেন্দ্রে আর জায়গা দেয়া সম্ভব নয়। ফলে ওই নৌকাটি উপকূলীয় জারজিস শহর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে সাগ‌রে ভাস‌তে থাকে। প‌রে বাংলা‌দেশ দূতাবা‌সের কর্মকর্তারা সেখা‌নে যান।

লি‌বিয়ার বাংলা‌দেশ দূতাবাস সূত্রে জানা গে‌ছে, আটকে পড়া বাংলাদেশীরা দেশে ফিরে যাবেন, দূতাবাসের পক্ষ থেকে তিউনিসিয়ার কর্তৃপক্ষক এমন নিশচয়তা প্রদানের পর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাদেরকে ১৮ জুন সন্ধ্যায় জারজিস বন্দরে নামার অনুমতি দেয়। তবে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ কোনক্রমেই তাদেরকে জারজিস বা মেডেনিনে থাকার অনুমতি প্রদান করেনি। এমতাবস্থায় উদ্ধারকৃত বাংলাদেশীদের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থায় তিউনিসে এনে রেড ক্রিসেন্ট ও আইওএম এর যৌথভাবে পরিচালিত শেল্টার হাউজে রাখার ব্যবস্থা করা হয়। সেখান থে‌কে পর্যায়ক্রমে সবাই‌কে দেশে পাঠা‌নো হ‌চ্ছে।

এর ম‌ধ্যে প্রথম দফায় ২০ জন‌কে টি‌কিট দি‌লেও তিনজন অাস‌তে রা‌জি হন‌নি। বা‌কি ১৭ জন অাজ বি‌কে‌লে ঢাকায় অাস‌ছেন।

লি‌বিয়ার বাংলা‌দেশ দূতাবাস বল‌ছে, তিনজন দে‌শে অাস‌তে রা‌জি না হওয়ার বিষয়‌টি নতুন দু‌শ্চিন্তার কারণ। একইভা‌বে শেল্টার হাউজে অবস্থানরত আরো কিছু বাংলাদেশী এই মুহুর্তে দেশে যেতে অস্বীকৃতি জানাতে পারে। বিষয়টি অত্যন্ত চিন্তার কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। কেননা তাদের সকলকে দেশে ফিরে যাওয়ার বিষয়ে রাজি করানোর পরই তিউনিসিয়ার কর্তৃপক্ষের নিকট নিশ্চয়তা দেওয়া হয়। দূতাবাসের অনুরোধের প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাদের জন্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসা, কাপড়চোপড় এবং তিউনিসে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করেছে।

এছাড়াও তাদের সকলের আত্মীয়স্বজনের সাথে দেশে কথা বলার ব্যবস্থা করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত সবাই দেশে ফিরে না গেলে পরবর্তীতে এই রকম দূর্ঘটনায় তিউনিসিয়ার কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা পাওয়া কঠিন হয়ে পড়বে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর
© 2018 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখ, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার বেআইনি
Theme Customized BY LatestNews