Print Friendly, PDF & Email

 

বিশেষ প্রতিনিধি: মালয়েশিয়ার দ্বীপ রাজ্য সারওয়াকে ২৪ কর্মী যাচ্ছে শুক্রবার ( ১৪ জুন)। গেলো বছরের সেপ্টম্বরে জিটুজি প্লাস কলিং ভিসা বন্ধ হওয়ার পর এই প্রথম দেশটির সারওয়াক প্রদেশে কর্মী যাচ্ছে। তবে তা খুবই সীমিত সংখ্যক।

বাংলাদেশের বেসরকারি রিক্রুটিং এজেন্সি এসটিএস ওভারসিজ নিজস্ব উদ্যোগে এই কর্মী পাঠানোর ব্যবস্থা করে বলে জানা গেছে। এই কর্মীদের ভিসাসহ যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার(১৩জুন) প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্হান মন্ত্রণালয় থেকে কর্মীদের অভিবাসন ছাড়পত্র প্রতিষ্ঠানটিকে তুলে দেন প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

এসটিএস ওভারসীজের চেয়ারম্যান রাফি মীরের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিবাসন ছাড়পত্রের স্মার্টকার্ড তুলে দেন প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

সারওয়াক প্রদেশের মেসার্স কিং হং স্টীল কোম্পানীতে মোট ৫০ জন কর্মী পাঠাবে এজেন্সিটি। শুক্রবার প্রথম ব্যাচের ২৪ কর্মী যাচ্ছে ।

১৫ মে সারওয়াক প্রদেশে প্রতিমন্ত্রীর সফর

এর আগে গত মে মাসের ১৫ তারিখে মালয়েশিয়া সফরকালে সারওয়াক প্রদেশে যান প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ। সেখানে গভর্নরসহ ব্যবসায়ীদের সাথে বৈঠকও করেন তিনি ।

উল্লেখ্য, সারওয়াক প্রদেশে কর্মী গেলেও মালয়েশিয়া কেন্দ্রীয় সরকারের সাথে কলিং ভিসা বিষয়ে কোন ফলাফলে পৌঁছাতে পারেনি বাংলাদেশ। কবে নাগাল কলিং ভিসা চালু হবে সে বিষয়ে তথ্য নেই কারো কাছেই।

bdnewspaper24