Print Friendly, PDF & Email

এইচ এম হুমায়ুন কবির, মাস্কাট, ওমানঃ  ওমানের রাজধানী মাস্কাটের আল সীবে “রেড ফেলকন” নামে কার্পেট,পর্দা ও ফার্নিচার সরঞ্জামের পাইকারি ব্যাবসা করে নিজের ভাগ্য বদলেছেন চট্টগ্রাম জেলার রাউজানের ছেলে মোঃ ইসমাইল চৌধুরী।

নিজের পরিশ্রম ও সততার মধ্য দিয়ে উপার্জন করে নিজেই কার্পেট, পর্দা ও ফার্নিচার এক্সেসরিজের হোলসেলের বিশাল শো-রোম খুলে সফল হয়েছেন এই বাংলাদেশী। ইচ্ছে আর কঠোর পরিশ্রমের নামই যে সফলতা তা  প্রমাণ করলেন চট্টগ্রাম জেলার রাউজান থানার দক্ষিন সর্তা গ্রামের মুছা চৌধুরীর ছেলে মোঃ ঈসমাইল চৌধুরী।

জীবনের প্রয়োজনে মানুষ তার নিজ ভাগ্য বদলের আশায় কতো কিছুই না করছে। কেউ চাকরি আবার কেউ ব্যবসা। প্রিয়জনদের ছেড়ে দূর প্রবাসে থাকছেন সফলতার জন্য; কেউ সফল হয় আবার কেউ জীবন যুদ্ধে হেরে হন সর্বশান্ত । ভোরের নিকোশ কালো অন্ধকার কাটলেই সূর্যের তাপ এবং অনেকটা বৈরি পরিবেশেই শুরু হয় একজন প্রবাসীর ব্যস্ততা। এতো পরিশ্রমের পরেও দিন শেষে দেখা যায় সংখ্যায় খুব অল্প সফল মানুষ।

প্রায় দুই যুগে নিজের ভাগ্য বদলেছেন মোঃ ইসমাইল চৌধুরী। নিজের পরিশ্রম শততা ও ইচ্ছার মধ্য দিয়ে উপার্জন করে তিনি নিজেই এখন তার প্রতিষ্ঠানে চাকরির ব্যাবস্থা করেছেন ভারতীয়, পাকিস্তানিসহ অনেক বাংলাদেশীর। ব্যবসার পাশাপাশি তিনি ওমানে বাংলাদেশ সোস্যাল ক্লাব ও বাংলাদেশ স্কুল মাস্কাটের বোর্ড অব ডিরেক্টর হিসেবেও দায়ীত্ব পালন করেন এবং স্কুলের উন্নয়নে যথেষ্ট সহায়ক ভূমিকা রাখেন। সাধ্যনুযায়ী সমাজসেবামূলক কাজও করছেন সমান তালে ৷ তার নিজ এলাকায় বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজেও নিজের অবস্থান নিশ্চিত করেছেন এই ব্যাবসায়ী।

তার প্রতিষ্ঠানে কাজ করতে পেরে খুশি শ্রমিকরা। প্রায় দুই যুগ আগে জীবিকার প্রয়োজনে ওমানে আসা ইসমাঈল চৌধুরীর ইচ্ছে ছিলো ব্যবসায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা, সততা আর উদ্যম দিয়ে করেছেনও তাই। তার শুরুর গল্প নিয়ে কথা বলতে গিয়ে তিনি- প্রবাস বার্তা’কে  বলেন, ইচ্ছে থাকলেই জীবনের লক্ষে পৌঁছানো  সম্ভব। তিনি জীবিকার সন্ধানে ওমানে আসতে ইচ্ছুক শ্রমিকদের পরামর্শ দেন নিয়ম মেনে ভালো করে জেনে বুঝে যে কোন একটা কাজ শিখে ওমানে পাড়ি জমাতে।

সফল ও পরিশ্রমি এই ব্যবসায়ী মনে করেন জীবনে সব কিছু সহজ ভাবে নিতে পারলে ও সময়ের কাজটা শুধু সময় মতো করতে পারলে সাফল্য নির্দিষ্ট একটা সময়ে কড়া নারবে আপন সীমানায়।

bdnewspaper24