Print Friendly, PDF & Email

বিশেষ প্রতিবেদক : মালয়েশিয়ায় থাকা অবৈধ বাংলাদেশি কর্মীদের বৈধ করার বিষয়ে দেশটিকে অনুরোধ করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্হান প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

বুধবার দুপুরে প্রবাস বার্তা-কে তিনি বলেন, মালয়েশিয়ায় অনেক বাংলাদেশী কর্মী সমস্যার মধ্যে আছেন বলে জানা গেছে। প্রবাসীদের মধ্যে যাদের সঠিক কাগজপত্র নেই অথবা যারা গেলো বছর শেষ হওয়া রি-হায়ারিং এ বৈধ হতে পারেননি তাদের বিষয়ে মালয়েশিয়া সরকারকে অনুরোধ করবেন তিনি।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ায় ইমিগ্রেশন পুলিশের অভিযানে আটক হচ্ছে দেশটিতে থাকা অবৈধ অভিবাসীরা। তাদের মধ্যে বাংলাদেশি কর্মীরাও আটক হচ্ছেন। প্রবাসীরা অভিযোগ করছেন,  অভিযানে অনেক বৈধরা কর্মীও আটক হচ্ছেন। এর ফলে মালয়েশিয়া প্রবাসীরা আতঙ্কে আছেন।

তবে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন,  বাংলাদেশ অনুরোধ করলেই মালয়েশিয়া সরকার আবারো দ্রুতই  বৈধতার সুযোগ দিবে বিষয়টা এতো সহজ নয়। কারণ মালয়েশিয়ার নিজস্ব আইন আছে। তারা সেই আইন অনুযায়ী চলছে। বৈধতা দেয়ার বিষয়টাও তাদের ওপরই নির্ভর করছে।

প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশি অনেক কর্মী রি-হায়ারিং প্রোগ্রামে দালালের কাছে টাকা দিয়ে প্রতারিত হয়েছেন। অনেকে আবার পেশা পরিবর্তন করে অবৈধ হয়েছেন। এমন নানা কারনে যারাই অবৈধ আছেন, তাদের আবার বৈধ করার কোন সুযোগ দেয়া যায় কিনা, সে বিষয়ে মালয়েশিয়া সরকারকে অনুরোধ করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ জানান, প্রবাসীদের সকল সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করে যাচ্ছেন তারা। প্রবাসে একজন কর্মী যে কারনেই অবৈধ হোক না কেনো, তিনি যেহেতু বাংলাদেশের নাগরিক তার দায়িত্ব সরকার নেবে এবং নিচ্ছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

বর্তমান সরকার প্রবাসীদের বিষয়ে আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে উল্লেখ করে ইমরান আহমেদ বলেন, বিশ্বের যেখানেই প্রবাসীদের সমস্যা হোক না কেন, দূতাবাসগুলো তার সমাধানে বদ্ধ পরিকর।

প্রতিমন্ত্রী কর্মীদের প্রতি আহবান জানান, তারা যেনো কোম্পানী পরিবর্তন না করেন। অনেক কর্মী আছে, যারা এক কোম্পানীর ভিসায় গিয়ে বেশি বেতনের আশার কোম্পানী পরিবর্তন করেন। এটা করলে তারা অবৈধ হয়ে যাবেন। তখন তারা নানা সমস্যায় পরেন। তাই প্রবাসে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের সে দেশের আইন কানুন ভালোভাবে জেনে, সেগুলো মেনে চলার আহবান জানান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্হান প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

গেলো মার্চে প্রতিমন্ত্রীর  মালয়েশিয়া সফরে যাওয়ার কথা থাকলেও তাঁর স্ত্রী গুরুতর অসুস্থ ( সিঙ্গাপুর হাসপাতালে আইসিইউতে তিকিৎসারত) থাকায় যেতে পারেননি। তবে দ্রুতই মালয়েশিয়া যাবেন বলে জানিয়েছেন ইমরান আহমেদ।

 

 

all.bdnewspaper24.com